gurgaon namaz row

ওয়েবডেস্ক: গুরগাঁও শহরের ২২টি মসজিদের সামনে যে জমি রয়েছে সেগুলি জবরদখলমুক্ত করার জন্য গুরগাঁও প্রশাসনের কাছে আর্জি জানাল ওয়াকফ বোর্ড। নমাজ নিয়ে বিভিন্ন  বিতর্কের মধ্যেই এই অনুরোধ করল ওয়াকফ বোর্ড।

কোথায় নমাজ পড়া হবে এই নিয়ে বেশ কিছু দিন ধরেই বিতর্ক চলছে গুরগাঁও শহরে। গত শুক্রবার শহরের একটি অঞ্চলে নমাজ চলাকালীন সেখানে হামলা করে কয়েকটি হিন্দুত্ববাদী সংগঠন। জোর করে বন্ধ করে দেওয়া হয় নমাজ। যে জমিতে নমাজ পড়া হচ্ছিল সেটি সরকারি জমি বলে চিহ্নিত। এর পরেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টর বলেন, সর্বজনীন জায়গায় নয়, নমাজ পড়া উচিত মসজিদের বা নিজেদের বাড়ির ভেতর।

সেই বিতর্কে ইন্ধন জোগান রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী অনিল ভিজ। নমাজের মাধ্যমে মুসলিমরা জোর করে জমি দখল করছে, এ রকমই ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর কথায়, “সব ধর্মের মানুষকে তাঁর ধর্মচর্চা করার স্বাধীনতা দিয়েছে ভারতের সংবিধান। কিন্তু তা বলে যদি ধর্মচর্চার নামে জমি দখল করা হয় সেটা কোনো ভাবেই মেনে নেওয়া হবে না।”

এই নমাজ বিতর্কের অবসানের জন্যই এ বার পথে নামল ওয়াকফ বোর্ড। বোর্ডের আধিকারিক জালাল উদ্দিন বলেন, “মুসলিমরা যাতে নিজের মতো করে নমাজ পড়তে পারে সেই জন্য শহরের ২২টি মসজিদের সামনে জবরদখলকারীদের সরানোর জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করা হয়েছে।”

এই অনুরোধকে তাঁরা গুরুত্ব সহকারে দেখছেন বলে জানিয়েছে গুরগাঁও জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here