ওয়েবডেস্ক: কাশ্মীরে বাঙালি শ্রমিক নিধনের ঘটনায় শোকপ্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিহতদের পরিবারের প্রতি সব রকম সাহায্যের আশ্বাসও দিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কাশ্মীরের কুলগামে নির্বিচারে হত্যা করা হয় এ রাজ্যের পাঁচ শ্রমিককে। কুলগ্রামের কাটারসুতে একটি বাড়িতে কর্মরত শ্রমিকদের ওপরে গুলি চালায় জঙ্গিরা।

এলাকাটি হিজবুলের ঘাঁটি বলে মনে করা হয়। জঙ্গিদের ওই গুলিতে নিহত হন মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘির ব্রাহ্মণী গ্রামের ৫ শ্রমিক।

কাঠের কাজ করতে কাশ্মীরে গিয়েছিলেন । গুরুতর আহত হয়েছেন একজন। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতদের নাম- কামরুদ্দিন শেখ, মুর্শিনাম শেখ, রফিক আহমদ শেখ, নইমুদ্দিন, রফিকুল আলম।

আরও পড়ুন দেবেন্দ্র ফডনবিসের চাঞ্চল্যকর মন্তব্যের পরই বিজেপির সঙ্গে বৈঠক বাতিল করল শিবসেনা

পুরোপুরি আইএসের কায়দায় এই হত্যালীলা চালানো হয়েছে বলে মনে করছে স্থানীয় প্রশাসন। যে ভাবে বাড়ি থেকে বের করে এনে লাইনে দাঁড় করিয়ে এই গুলি চালানো হয়েছে, এই ধরনের নজির, ভারতে বেশি নেই।

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে টুইট করে মমতা জানিয়েছেন, “কাশ্মীরে যে ভাবে নিরাপরাধ শ্রমিকদের গুলি করে মারা হয়েছে তাতে আমি স্তম্ভিত। নিহতরা সবাই মুর্শিদাবাদের বাসিন্দা। কোনো রকম সান্ত্বনা নিহতদের পরিবারের শোক কম করতে পারবে না। নিহতদের পরিবারগুলিকে সব রকম সাহায্য করা হবে।’

টুইটে শোকপ্রকাশ করেছেন জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতিও। তিনি টুইট করেছেন, “ভয়ংকর ঘটনা। উপত্যকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা কেমন এ বার তা ভেবে দেখা উচিত। ৩৭০ ধারা বিলোপের পর জঙ্গি হামলা বন্ধ হয়ে যাওয়ার বদলে হামলার ঘটনা বেড়েই চলেছে।”

এ নিয়ে গত ২ সপ্তাহে মোট ১১ জন অ-কাশ্মীরিকে খুন করল জঙ্গিরা।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন