Connect with us

দেশ

অমিত শাহের হিন্দি-তত্ত্বের বিরুদ্ধে সরব মমতা, সিদ্দারামাইয়া, স্টালিন

ওয়েবডেস্ক: শনিবার হিন্দি দিবস-এ আরও বেশি করে হিন্দির বলার আবেদন রেখেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বেশ কয়েক মাস ধরেই জোর করে হিন্দি চাপিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠছে। চলছে দেশজোড়া বিতর্কও। স্বাভাবিক ভাবেই অমিতের এ দিনের আবেদন সেই বিতর্কে আরও ইন্ধন জোগাল।

অমিতের টুইটের পরই কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া কন্নড়ে টুইট করে লেখেন, “হিন্দি একটি জাতীয় ভাষা, এই মিথ্যা প্রচার বন্ধ করা উচিত। এটা সকলেই জানেন যে, এটি কন্নড়ের মতোই ভারতের ২২টি সরকারি ভাষার মধ্যে অন্যতম একটি”।

একই সঙ্গে সিদ্দারামাইয়া লিখেছেন, “আপনি মিথ্যা ও জাল তথ্য ছড়িয়ে কোনো ভাষার প্রচার করতে পারবেন না। ভাষা একে অপরের প্রতি স্নেহ ও শ্রদ্ধার আদান-প্রদানের মাধ্যমে বিকশিত হয়”। হিন্দির কোনো বিরোধিতা নয়। কিন্তু জোর করে হিন্দি চাপিয়ে দেওয়ার বিরুদ্ধেই সরব হয়েছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

ডিএমকে প্রধান স্টালিন বলেন, “তাঁর (অমিতের) অনুরোধ অবিলম্বে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য আমরা তাঁকে অনুরোধ করছি। তাঁর আবেদনে অ-হিন্দিভাষী লোকদের দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিক হিসাবে দেখানোর চেষ্টা রয়েছে। যদি এই মন্তব্য প্রত্যাহার না করা হয়, ডিএমকে পরবর্তী পদক্ষেপের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করতে বাধ্য হবে”।

একই ভাবে সরকারকে এ জাতীয় “অসাধু প্রচেষ্টা” থেকে বিরত থাকার সতর্কতা দিয়ে সিপিআই অমিত শাহকে তাঁর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে।

লিখিত বিবৃতি দিয়ে সিপিআই বলে, “হিন্দি দিবসে অমিত শাহের বক্তব্য যে, আমাদের জাতির ঐক্যকে শুধুমাত্র হিন্দি ভাষাই ধরে রাখতে পারে। এই ধরনের মন্তব্য বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্যের ধারণার উপর হামলার সমান। বিভিন্নতার সম্মান, সুরক্ষা এবং লালন করলেই আমাদের জাতির ঐক্য নিশ্চিত হয়”।

অন্য দিকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও টুইটারে এ দিন লিখেছেন, “হিন্দি দিবসে সবাইকে জানাই শুভেচ্ছা। আমাদের উচিত সব ভাষা ও সংস্কৃতিকে সমান ভাবে সম্মান জানানো। আমরা অনেক ভাষাই শিখতে পারি কিন্তু মাতৃভাষাকে কখনোই ভোলা উচিত নয়”।

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

দেশ

নির্দিষ্ট কয়েকটি দেশে ফের আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা চালু করছে কেন্দ্র

পরিকল্পনার অংশ হিসাবে দেশগুলির নির্বাচিত গন্তব্যে সীমিত সংখ্যক বিমান চলাচল শুরু হবে।

ওয়েবডেস্ক: আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা পুনরায় চালু করার চেষ্টা চলছে। বৃহস্পতিবার কেন্দ্র জানায়, এই পরিকল্পনার অংশ হিসাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জার্মানি এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহির দেশগুলির নির্বাচিত গন্তব্যে সীমিত সংখ্যক বিমান চলাচল শুরু হবে।

এ দিন অ-সামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী (Hardeep Singh puri) সাংবাদিকদের কাছে বলেন, “আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স এবং আরব আমিরশাহির সঙ্গে এ ব্যাপারে একটি চুক্তি সম্পূর্ণ হয়েছে। জার্মানির সঙ্গেও সমঝোতার বিষয়টি চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। এ ছাড়া আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা চালু করতে আগ্রহী আরও বেশ কয়েকটি দেশের সঙ্গে আলোচনা চলছে। আমরা স্বাভাবিক ভাবে আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা পুনরায় শুরু না হওয়া পর্যন্ত সীমিত সংখ্যক সংস্থাকে বিমান চালানোর অনুমতি দিচ্ছি”।

তিনি একই সঙ্গে বলেন, এই বিমানগুলির সময়তালিকাও পর্যালোচনা করা হবে এবং যখন প্রয়োজন হবে তখন পরিকল্পনায় প্রয়োজনীয় পরিবর্তন করা হবে।

কোন সংস্থা কোথায় বিমান চালাবে?

*ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স এবং ডেল্টা চালাবে ভারত-আমেরিকায়। ১৭-৩১ জুলাই দুই দেশের মধ্যে ১৮টি বিমান চলবে।

*এয়ার ফ্রান্স চলাচল করবে ফ্রান্স-ভারত। দিল্লি, মুম্বই, বেঙ্গালুরু এবং প্যারিসের মধ্যে যাতায়াত করবে সংস্থার ২৮টি বিমান। সময়সীমা ১৮ জুলাই থেকে ১ আগস্ট।

*আরব আমিরশাহিতে চলাচল করবে একাধিক সংস্থার বিমান।

*যুক্তরাজ্যের কোনো সংস্থা এখনও পর্যন্ত অনুমতি পায়নি। তবে লন্ডন-ভারত উড়ান পরিষেবা দেবে এয়ার ইন্ডিয়া।

*জার্মানির জন্য লুফৎনসার মনোনয়ন রয়েছে।

এর আগে আনলক ২-এ আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা চালুর কথা জানায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। তার পরেই ডিরেক্টরেট জেনারেল অব সিভিল অ্যাভিয়েশন (DGCA) নির্ধারিত কয়েকটি দেশে আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা পুনরায় চালু করার অনুমোদনের কথা জানায়।

মন্ত্রকের সচিব প্রদীপ সিং খারোলা জানিয়েছেন, “ওই দেশগুলির কোনো যাত্রীকে সফরের অনুমতি দেওয়া হবে কি না, তা সংশ্লিষ্ট দেশের বিধি অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে”।

প্রসঙ্গত, গত মার্চ মাসে দেশব্যাপী লকডাউন চালু হওয়ার পর থেকেই সমস্ত রকমের উড়ান পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়। এর পর বিদেশে আটকে পড়া ভারতীয়দের দেশে ফেরাতে ‘বন্দে ভারত মিশন’-এ বিশেষ বিমান চালায় এয়ার ইন্ডিয়া। তার পর বেশ কয়েক সপ্তাহ পরে কোভিড-১৯ সুরক্ষাবিধি মেনে ঘরোয়া উড়ান পরিষেবা চালু হয় গত ২৫ মে থেকে।

আনলক শুরু হওয়ার পর  ডিজিসিএ ঘোষণা করে, ভারতে আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা ১৫ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত থাকবে। তবে এই নিষেধাজ্ঞা আন্তর্জাতিক কার্গো অপারেশন এবং বিশেষ বিমানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না। তবে ১৫ জুলাইয়ের পরদিনই ফের আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা শুরুর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করল কেন্দ্র।

Continue Reading

দেশ

অসমে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ, বিপন্ন কাজিরাঙার বন্যপ্রাণও

কাজিরাঙা মৃত ৬৬ বন্যজন্তু

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গত দু’ দিনের প্রবল বৃষ্টিতে অসমের (Assam Floods 2020) বন্যা পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতি হয়েছে। নতুন করে দু’ জনের মৃত্যু হওয়ায় বর্তমানে রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬৮।

অসম স্টেট ডিজাজটার ম্যানেজমেন্ট অথোরিটি (ASDMA) জানিয়েছে, বন্যার প্রভাব পড়েছে রাজ্যের ৩০টি জেলায়। এই সব জেলায় মোট সাড়ে চার হাজার গ্রামে বন্যায় দুর্গত কমপক্ষে ৪৮ লক্ষ ৭ হাজার মানুষ।

বন্যায় সব থেকে বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ধেমাজি, লখিমপুর, বিশ্বনাথ, শোণিতপুর, চিরাং, উদালগুড়ি, গোলাঘাট, জোরহাট, মাজুলি, শিবসাগর, ডিব্রুগড়, তিনসুকিয়া জেলাগুলির। রাজ্যে জুড়ে ৪৮৭টি ত্রাণশিবির খোলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, এ বছর মে মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকেই বন্যা হচ্ছে অসমে। বর্ষার আগেই ঘূর্ণিঝড় উম্পুনের দাপটে তিন দিনের প্রবল বৃষ্টিতে রাজ্যের কয়েকটি জেলায় বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়। সেই বন্যার জল নামতে না নামতেই আবার ফের বন্যা দেখা দিল অসমে।

কাজিরাঙা মৃত ৬৬ বন্যজন্তু

বন্যার কারণে কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানে (Kaziranga National Park) ৬৬ বন্যজন্তুর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে অসমের বন দফতর। জাতীয় উদ্যানের ডিরেক্টর পি শিবকুমার বলেন, “গত বেশ কয়েক বছরের মধ্যে এটাই কাজিরাঙায় হওয়া সব থেকে ভয়াবহ বন্যা। এখনও পর্যন্ত ৬৬ বন্যপ্রাণীর মৃত্যু হয়েছেন। ১৭০টি প্রাণীকে নিরাপদে উদ্ধার করা হয়েছে।

পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়াল কাজিরাঙায় আসবেন বলে জানিয়েছেন শিবকুমার।

Continue Reading

দেশ

অধ্যক্ষের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে সচিন পায়লট

গত কয়েক দিন ধরে গোষ্ঠী রাজনীতি ঘিরে উত্তাল রাজস্থান কংগ্রেসের অন্দরমহল।

জয়পুর: রাজস্থান হাইকোর্টের দ্বারস্থ হলেন সচিন পায়লট (Sachin Pilot)। তাঁকে এবং তাঁর অনুগামী মন্ত্রী-বিধায়কদের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মামলা দায়ের হল। যার ফলে রাজস্থানে কংগ্রেস সরকারের ‘সংকট’ নতুন দিকে মোড় নিল।

গত কয়েক দিন ধরে গোষ্ঠী রাজনীতি ঘিরে উত্তাল রাজস্থান কংগ্রেসের অন্দরমহল। রাজস্থান বিধানসভার অধ্যক্ষ সিপি যোশী (CP Joshi) গত বুধবার সচিন এবং তাঁর অনুগামী ১৮ জন বিধায়ককে বরখাস্তের নোটিশ পাঠান। আর তারপরই নাটকীয় ভাবে পুরো পরিস্থিতি অন্য মাত্রা পেয়ে যায়। সচিন এবং তাঁর অনুগামী বিধায়ক বরখাস্তের নোটিশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টের কড়া নাড়লেন।

এনডিটিভির একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, সচিন এবং তাঁর অনুগামীদের হয়ে সওয়াল করবেন মুকুল রোহতগি (Mukul Rohatgi)। ২০১৪ সালে কেন্দ্রে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর রোহতগিকে অ্যাটর্নি জেনারেল পদে নিযুক্ত করা হয়েছিল। তিনিই লড়বেন সচিন এবং তাঁর অনুগামীদের পক্ষে।

সচিন এক সময়ে বিজেপি সরকারের শীর্ষ আইনজীবীর সাহায্য নিতেই কংগ্রেস শিবিরও জাঁদরেল আইনজীবীর সহযোগিতা নিচ্ছে। কংগ্রেস সূত্রে খবর, তাদের হয়ে আদালতে প্রতিনিধিত্ব করবেন অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি (Abhishek Manu Singhvi)।

আইনি লড়াইয়ে কেন?

২০০ সদস্যের রাজস্থান বিধানসভায় ক্ষমতা ধরে রাখতে কংগ্রেসের ঝুলিতে পর্যাপ্ত সংখ্যক বিধায়ক রয়েছেন বলে দল আগেই দাবি করেছে।

তবে ‘বিদ্রোহী’ কংগ্রেস বিধায়কদের বরখাস্ত করা হলে বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখতে প্রয়োজনীয় বিধায়ক সংখ্যাও কমে আসবে। সে ক্ষেত্রে মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত (Ashok Gehlot) বিধানসভার শক্তিপরীক্ষায় সহজেই উত্তীর্ণ হয়ে যেতে পারেন।

কিন্তু বিদ্রোহী বিধায়করা যদি কংগ্রেস বিধায়ক হিসাবে ভোট দেওয়ার অধিকার পান, সে ক্ষেত্রে বিপদে পড়তে পারেন অশোক। তবে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেছেন, তাঁর পক্ষে ১০৬ জন বিধায়কের সমর্থন রয়েছে।

বিজেপির ঘুঁটি

ঘটনায় প্রকাশ, বিজেপির দিকে ৭৩ জন বিধায়ক রয়েছেন। ফলে রাজ্যের শাসনক্ষমতা দখল করতে কমপক্ষে আরও ৩০ জনের সমর্থন দরকার। কংগ্রেস সূত্র দাবি করেছে, সচিন সেই লক্ষ্যে পৌঁছোনোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

তবে সচিন গতকাল দাবি করেছেন, তিনি বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন না। উল্টে কংগ্রেসের সঙ্গে আপসের পথে যেতে চাইছেন। কিন্তু তিনি এবং তাঁর অনুগামী বিধায়করা দিল্লির কাছে যে হোটেলে রয়েছেন, সেটির সঙ্গে বিজেপি নেতৃত্বের সংযোগের সূত্র ধরেই তাঁর গেরুয়া শিবিরে যোগদানের জল্পনা উসকে দিয়েছে।

ছবি: প্রতিনিধিত্বমূলক

Continue Reading
Advertisement
দেশ1 hour ago

নির্দিষ্ট কয়েকটি দেশে ফের আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা চালু করছে কেন্দ্র

বিনোদন1 hour ago

অবশেষে নতুন এপিসোড নিয়ে সাব টিভির পর্দায় ফিরছে ‘তারক মেহকা উলটা চশমা’ও, জেনে নিন কবে থেকে

দেশ2 hours ago

অসমে বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ, বিপন্ন কাজিরাঙার বন্যপ্রাণও

রাজ্য2 hours ago

আরও চার হাজার বেড বাড়ছে রাজ্যে, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

ক্রিকেট2 hours ago

করোনা-নিয়ম লঙ্ঘন, দ্বিতীয় টেস্ট থেকে বাদ ইংল্যান্ডের জোফরা আর্চার

রাজ্য2 hours ago

প্রকাশ্যে নবান্ন বনাম রাজভবন শিক্ষা-সংঘাত!

দেশ3 hours ago

অধ্যক্ষের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে সচিন পায়লট

বিনোদন4 hours ago

ধর্ষণ এবং খুনের হুমকি, সাইবার ক্রাইমে অভিযোগ রিয়া চক্রবর্তীর

কেনাকাটা

laptop laptop
কেনাকাটা24 hours ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা4 days ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা7 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা1 week ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

নজরে