man runover by train on wedding day

বরেলি: রেললাইনে দাঁড়িয়ে সেলফি তোলার যে কী ভয়াবহ পরিণতি হতে পারে সেটা বার বারই বোঝা গিয়েছে। তার পরেও এক শ্রেণির মানুষের যে কোনো হুঁশই ফেরেনি সেটা প্রমাণিত হল ফের ট্রেনের ধাক্কায় যুবকের মৃত্যুতে। রেললাইন পেরোনোর সময়ে তিনি ব্যস্ত ছিলেন মোবাইলে। খেয়াল করেননি যে ট্রেন আসছে। পরিণতি, ট্রেনের ধাক্কায় বিয়ের দিনই মৃত্যু।

রবিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে বরেলির কাছে নান্দোসি গ্রামে। রবিবার বিকেলেই বিয়ে হওয়ার কথা ছিল নরেশ পাল গাংওয়ার নামক ওই যুবকের। নয়ডার একটি সংস্থায় ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত ছিলেন তিনি। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, ঘটনার সময়ে লাইন দিয়ে হাঁটছিলেন নরেশ। একটি ফোনে কথা বলার পাশাপাশি অন্য একটি ফোনে কাউকে এসএমএসও করছিলেন। খেয়াল করেননি যে রাজ্যরানি এক্সপ্রেস তাঁর একদম নাকের ডগায় এসে গিয়েছে।

নরেশের দাদা বলেন, “বাড়ি থেকে ৫০ মিটার দূরেই রেললাইন। বিয়ের প্রস্তুতির জন্য বাড়িতে শোরগোল ছিল বলে নরেশ লাইনের ধারে গিয়ে ফোনে কথা বলছিল। মোবাইলে এতটাই ব্যস্ত হয়ে পড়েছিল যে তার খেয়ালই হয়নি যে ট্রেন এসে গিয়েছে।”

রেললাইনে মোবাইল ব্যবহারের জন্য দুর্ঘটনা ক্রমে বাড়ছে ভারতে। একটি তথ্য বলছে ২০১৪-এর মে থেকে ২০১৬-এর জানুয়ারি পর্যন্ত লাইনে দাঁড়িয়ে সেলফি নিতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে ১৬ জনের। অন্য একটি তথ্য অনুযায়ী ২০১৪-এর মার্চ থেকে ২০১৬-এর সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিশ্বে যত সেলফি নিতে গিয়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে, তার ষাট শতাংশই ঘটেছে ভারতে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন