নয়াদিল্লি: দুবাই থেকে এসেছেন তিনি। যাওয়ার কথা ছিল কাঠমান্ডু। কিন্তু দিল্লি বিমানবন্দরে কাঠমান্ডুর বিমানে ওঠার আগে ‘বোধোদয়’ হল তাঁর। সটান চলে গেলেন ‘হেল্প ডেস্ক’-এ, নিজের দোষ স্বীকার করে নিতে। সেই সঙ্গে বললেন, আর কোনো দিনও এই ভুল তিনি করবেন না।

ইনি পাক নাগরিক মোহম্মদ আহমেদ শেখ মোহম্মদ রফিক। কী দোষ স্বীকার করলেন তিনি? ‘হেল্প ডেস্ক’-এ নিজেকে আইএসআইয়ের এজেন্ট দাবি করে তিনি বলেন, “আমি একজন আইএসআই এজেন্ট। কিন্তু আমি আরও এই কাজটা করতে চাই না, বরং পাকাপাকি ভাবে ভারতে থেকে যেতে চাই।” পাকিস্তানের পাসপোর্টধারী এই ব্যক্তির কথা শুনে কিছুক্ষণের জন্য হতচকিত হয়ে পড়েন ‘হেল্প ডেস্ক’-এর কর্মীরা। খবর দেওয়া হয় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাকে।

রফিককে জেরা করার জন্য সংস্থার অফিসাররা তাঁকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে গিয়েছেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত রফিকের জেরা চলছে। এক আধিকারিকের মতে, জেরায় রফিক দাবি করেছে সে পাকিস্তানের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি না করে ভারতেই থেকে যেতে চায়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here