রাঁচি: দেশের প্রায় অর্ধেক অংশ তীব্র জলসংকটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। একই অবস্থা ঝাড়খণ্ডের রাজধানী রাঁচিতেও। এ বার জল নিয়েই ঝামেলা বাধল দু’ পক্ষের। এক ব্যক্তির ছুরির আঘাতে আহত হলেন অন্তত ৬ জন।

রাঁচির কিশোরগঞ্জের ঘটনা। জলের জন্য পুরসভার গাড়ির সামনে লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন বাসিন্দারা। তখনই তাদের নজর যায় প্রতিবেশী পাড়ার এক ব্যক্তির ওপরে। বিশাল বিশাল পাত্রে প্রচুর পরিমাণে জল নিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। এতে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা বাসিন্দারা প্রতিবাদ করেন। তাদের দাবি ছিল, ওই ব্যক্তিই বেশি জল নিয়ে নিলে তাঁদের ভাগ্য বেশি কিছু জুটবে না।

ওই ব্যক্তির সঙ্গে ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েন জনৈক সুনীল যাদব এবং তাঁর ছেলে। এর পরেই বাবা ছেলের উদ্দেশে প্রথমে অশ্রাব্য ভাষায় গালাগাল করে অভিযুক্ত ব্যক্তি ভরত প্রসাদ। তার পর তাঁদের লক্ষ্য করে ছুরি চালিয়ে দেয় সে। ঘটনায় মারাত্মক জখম হন সুনীল ও তার ছেলে। শুধু এই দু’ জনই নয়, ভরতের ছুরির আঘাতে আহত হন আরও চার জন। ঘটনার পরেই গ্রেফতার করা হয় ভরত প্রসাদকে।

আরও পড়ুন ‘হিন্দি আগ্রাসন’-এর প্রতিবাদ, সরকারি দফতরের সাইনবোর্ডে হিন্দি লেখার ওপরে কালো কালী!

উল্লেখ্য, বৃষ্টির অভাবে রাঁচি শহরে জলসংকট তো চলছেই। তার মধ্যে সব থেকে খারাপ অবস্থা কিশোরগঞ্জে। বাসিন্দাদের অভিযোগ, এখানে চার দিনে এক বার করে জলের গাড়ি পাঠানো হয়। পাশাপাশি স্থানীয় খাল-বিল-নালা এক্কেবারে শুকিয়ে যাওয়ায় বাসিন্দাদের জল নেওয়ার জন্য অনেক দূরদুরান্তে যেতে হচ্ছে।

নিজেদের মধ্যে ঝামেলায় না জড়িয়ে সবাই যেতে সমপরিমাণ জল পান, সেই ব্যাপারে স্থানীয় মানুষের কাছে আবেদন করেছেন ঝাড়খণ্ডের মন্ত্রী সিপি সিং।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন