রাতের খাবার দিতে দেরি, স্ত্রীকে গুলি করে খুন প্রৌঢ়র

0
322

গাজিয়াবাদ: রাতের খাবার দিতে দেরি হচ্ছিল। শুধুমাত্র এই অপরাধে নিজের স্ত্রীকে গুলি করে খুন করলেন মদ্যপ প্রৌঢ়। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে। গাজিয়াবাদের মান সরোবর পার্ক এলাকায় থাকেন সপরিবার অশোক কুমার (৬০)। মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফেরার পরেই স্ত্রী সুনয়নার (৫৫) সঙ্গে ঝগড়া শুরু করেন পেশায় মিনি ট্রাকের চালক অশোক। এর পরেই রাগের বশে স্ত্রীর উদ্দেশে গুলি চালিয়ে দেন তিনি। ঘটনার সময় বাড়িতেই ছিলেন তাঁদের দুই ছেলে রিঙ্কু এবং টিঙ্কু, রিঙ্কুর স্ত্রী সোনি এবং তাঁদের দুই সন্তান।

ঘটনার বিবরণ দিতে গিয়ে রিঙ্কু বলেন, “রাত ন’টায় মদ্যপ অবস্থায় বাবা বাড়ি ফিরেছিলেন। ১১টার সময় মাকে রাতের খাবার দিতে বলেন। কিন্তু মা তখন খাবার দিতে চাননি। এতেই বাবা রেগে যান এবং বন্দুক বের করে মাকে হুমকি দিতে থাকেন। আমি, আমার স্ত্রী এবং আমার ভাই বাবাকে আটকানোর চেষ্টা করছিলাম, কিন্তু কোনো কাজ হয়নি। বাবা গুলি চালিয়ে দেন এবং সেটা লাগে মায়ের মাথায়।”

সুনয়নাদেবীকে তখনই কাছের হাসপাতালে নিয়ে যান তাঁর ছেলেরা কিন্তু তাঁকে বাঁচানো যায়নি। হাসপাতালের সিএমও বলেন, “হাসপাতালে পৌঁছোনোর আগেই রোগীর মৃত্যু হয়েছিল। তাঁর নাড়িও ছিল না।” এর পরেই কাছে কবিনগর থানায় বাবার বিরুদ্ধে এফআইআর করেন রিঙ্কু।

রবিবার তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ। স্থানীয় ওসি বলেন, “অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার কথা স্বীকার করেছেন তিনি। ঘটনার জন্য অনুতাপও করছেন অভিযুক্ত।” যে বন্দুক থেকে অশোক তাঁর স্ত্রীকে গুলি করেছেন সেটাও বেআইনি বলে জানিয়েছে পুলিশ। বন্দুকটা কী ভাবে অশোকের হাতে এল সেটাও তদন্ত করবে পুলিশ।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here