30 C
Kolkata
Friday, June 18, 2021

আক্রান্ত কর্মীদের দেখতে গিয়ে হামলার শিকার ত্রিপুরার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার, অভিযুক্ত বিজেপি

আরও পড়ুন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ত্রিপুরার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের ওপরে হামলার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলার শান্তিরবাজারে দলীয় সমর্থকদের বাড়িতে গিয়েছিল সিপিআইএমের একটি প্রতিনিধিদল। সেই সময় তাঁদের উপর হামলা চালানো হয়।

সোমবার মানিকবাবুর নেতৃত্বে শান্তিরবাজারে যায় সিপিআইএমের একটি প্রতিনিধিদল। ওই দলে ছিলেন উপ বিরোধীদল নেতা বাদল চৌধুরী-সহ অন্য নেতারা। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেছেন, যে কর্মী-সমর্থকদের বাড়িতে যাওয়া হয়েছিল, তাঁদের ওপরও হামলা চালিয়েছিল বিজেপি-আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।

Loading videos...
- Advertisement -

গত সপ্তাহে বুধবার দলীয় কার্যালয়ের সামনে কালমার্ক্সের জন্মবার্ষিকী পালনের সময় দলীয় কর্মী- সমর্থকদের উপর হামলা চালানো হয়েছিল। ওই হামলায় আক্রান্তদের সঙ্গে দেখা করতেই শান্তিরবাজারে গিয়েছিল সিপিএমের ওই দলটি। তখনই তাঁদের ওপরে হামলা চালানো হয়।

প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, সিপিএমের প্রতিনিধিদল যে ওই এলাকায় যাবে, তা আগেভাগেই রাজ্য পুলিশের ডিজিকে জানানো হয়েছিল। অথচ পরিস্থিতির দোহাই দিয়ে তাঁদের ফিরে যেতে বলা হয়। মূল রাস্তায় ফেরার সময় তাঁদের ওপর হামলা চালায় বিজেপি-আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।

মানিকবাবুর কথায়, “এটা পূর্বপরিকল্পিত হামলা। রাজ্য নেতাদের মদত ছাড়া এটা সম্ভব ছিল না। রাজ্যে আইন-শৃঙ্খলা ভেঙে পড়েছে। যত দিন যাচ্ছে, তত সিপিএম কর্মীদের উপর হামলা বাড়ছে।”

যদিও হামলার এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন রাজ্যের শাসক দল। ত্রিপুরার শিক্ষামন্ত্রী এবং মন্ত্রিসভার মুখপাত্র রতনলাল নাথ দাবি করেছেন, হামলাকারীরা বিজেপির কর্মী নয়। তারা পুরোনো সিপিএম কর্মী। দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভের কারণেই তাঁরা না কি হামলা চালিয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: কেরলের প্রথম কমিউনিস্ট সরকারের শেষ জীবিত সদস্য গৌরী আম্মা প্রয়াত

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

- Advertisement -

আপডেট

ইমিউনিটি বাড়াতে বাড়িতেই করুন যোগব্যায়াম

নিয়মিত ব্যায়াম করলে শরীরে শ্বেতকণিকার সংখ্যা বাড়ে অর্থাৎ জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করার ক্ষমতা বাড়ে। ফলে চট করে সংক্রমণ হয় না।

পড়তে পারেন