২০০৯ সালের তুলনায় মাওবাদী হিংসার ঘটনা কমেছে ৭০ শতাংশ, সংসদে জানাল কেন্দ্র

0
মাওবাদী হামলা আশংকায় জারি 'হাই অ্যালার্ট'। প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: ২০০৯ সালে দেশে মাওবাদী হিংসার ঘটনা ছিল সর্বোচ্চ। ২০২০-তে সেখান থেকে ৭০ শতাংশ নেমে এসেছে। বুধবার রাজ্যসভায় এমনই তথ্য পেশ করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই।

মন্ত্রী জানান, ২০০৯ সালে দেশে ২,২৫৮টি মাওবাদী হিংসার ঘটনা ঘটেছিল, যা সর্বকালের সর্বোচ্চ। ২০২০ সালে সেখান থেকে ৭০ শতাংশ কমে মাও হামলার ঘটনা ৬৬৫-তে নেমে এসেছে।

একটি লিখিত জবাবে মন্ত্রী বলেন, “নিরাপত্তা বাহিনী-সহ সাধারণ মানুষ এবং জনসাধারণের সম্পত্তিকেও লক্ষ্যবস্তু করে বাম চরমপন্থীরা। তবে, ২০০৯ সালে তাদের সংঘটিত হিংসার ঘটনা সর্বকালের সর্বোচ্চ ২,২৫৮ থেকে ৭০ শতাংশ কমে ২০২০ সালে ঠেকেছে ৬৬৫-তে”।

উল্লেখ্য, বিজেপি সাংসদ বিজয় পাল সিংহ তোমর ভারতে মাওবাদী হিংসার ঘটনা সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে। তাঁর প্রশ্নের জবাবেই এই পরিসংখ্যান তুলে ধরেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

মাওবাদী হামলার ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে কি না, সে প্রশ্নও করা হয় মন্ত্রীকে। জবাবে মন্ত্রী জানান, “একই ভাবে, সাধারণ মানুষ এবং নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মীদের মৃত্যু, উভয়ই ৮০ শতাংশ কমেছে। ২০১০ সালে মৃতের সংখ্যা ছিল ১০০৫, যা সর্বকালের সর্বোচ্চ। ২০২০-তে তা ১৮৩”।

মন্ত্রী আরও বলেন, “মাও হামলার ভৌগলিক বিস্তার সংকুচিত হয়েছে। ২০১৩ সালে দেশের ১০টি রাজ্যের ৭৬টি জেলায় বাম চরমপন্থীদের কার্যকলাপ বজায় ছিল। ২০২১-এ তা ৯টি রাজ্যেক ৫৩টি জেলায় তা সীমাবদ্ধ রয়েছে”।

আরও পড়তে পারেন

‘শিকার হয়েছেন শাহরুখ খান’, বিজেপি-কে নিশানায় রেখে মুম্বইয়ে তোপ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

বজবজে বাজির মশলা থেকে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, নিহত ৩

স্বস্তির খবর! ভারতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা নামল এক লক্ষের নীচে

আন্তর্জাতিক শীর্ষ তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলোকে চালাচ্ছেন ভারতে বেড়ে ওঠা এই সিইও-রা

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন