maharashtra bandh
ছবি: নিউজ ওয়ার্ল্ড ইন্ডিয়া থেকে

নয়াদিল্লি: অর্দিষ্টকালীন বন্‌ধ প্রত্যাহার করে নিল মরাঠা ক্রান্তি মোর্চা। বুধবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফডনবীশ আশ্বাস দেন, তিনি ওই সম্প্রদায়ের দাবি-দাওয়াগুলি নিয়ে কার্যকরী সিদ্ধান্ত নেবেন এবং তিনি সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলতে প্রস্তুত বলেও জানিয়েছেন।

গত মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া মরাঠা সম্প্রদায়ের কোটার দাবিতে বন্‌ধ ক্রমাগত হিংসাত্মক আকার ধারণ করতে শুরু করে। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ সামাল দিতে পুলিশকে হিমশিম খেতে হয়। গণপরিবহণে হামলা চালানো হয়। নবি মুম্বই, থানে-সহ বিভিন্ন এলাকায় ট্রেনে পাথর ছোড়ার অভিযোগ ওঠে। এমনকী, অস্ত্র নিয়ে প্রকাশ্য জমায়েতের খবরও পৌঁছায় পুলিশের কাছে। কয়েকটি জায়গায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসতে পুলিশকে শূন্যে গুলি পর্যন্ত চালাতে হয়। বিক্ষোভের আগুন যাতে আর প্রসারিত না হয়, সে দিকে নজর রেখেই প্রশাসনের তরফে বন্‌ধ প্রত্যাহার করানোর যাবতীয় উদ্যোগ নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: মরাঠাদের ডাকা বন্‌ধে অগ্নিগর্ভ মুম্বই, পরিষেবা বন্ধ করল বেস্ট

মূলত শিক্ষা ও কর্মক্ষেত্রে কোটার দাবি তুলেই বন্‌ধে নেমেছিল মোর্চা। তার উপর গত সোমবার এক মোর্চা সমর্থকের নদীতে ঝাঁপ দিয়ে মৃত্যুর ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রীর উক্তি নিয়েও ক্ষোভে পড়ে মরাঠারা। তারা মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষমা চাওয়ার দাবি তুলেছিল।

আরও পড়ুন: চাকরি ও শিক্ষায় ‘কোটা’র দাবিতে উত্তপ্ত মহারাষ্ট্র, ট্রেন অবরোধ, জ্বলল টায়ার

এ দিন ফডনবীশ বলেন, সরকারও চায় মরাঠা সম্প্রদায়ের জন্য পৃথক কোটার ব্যবস্থা করতে। কিন্তু বোম্বে হাইকোর্ট এ বিষয়ে স্থগিতাদেশ জারি করায় সরকারের হাত-পা বাঁধা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here