বিয়ে পিছিয়ে দেওয়ার জন্য ভারত-পাক সম্পর্কের টানাপড়েনকেই দায়ী করলেন রাজস্থানী যুবক

0
india pakistan rajasthan wedding
পাকিস্তানি যুবতীর সঙ্গে বিয়ে হওয়ার কথা মহেন্দ্র কুমারের।

বাড়মের: সব কিছু ঠিকঠাক চললে এত দিনে বিয়ে হয়ে যাওয়ার কথা ছিল মহেন্দ্র কুমারের। কিন্তু বাধ্য হয়ে বিয়ে পিছিয়ে দিতে হয়েছে তাঁকে। তার জন্য ভারত-পাকিস্তানের সম্পর্কের টানাপোড়েনকেই দায়ী করেছেন তিনি।

রাজস্থানের বাড়মের জেলার পাকিস্তান সীমান্তবর্তী গ্রাম খেজাদ-কা-পার গ্রামের বাসিন্দা মহেন্দ্র কুমার। তাঁর সঙ্গে বিয়ে হওয়ার কথা পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশের সিনই গ্রামের যুবতি ছগন কাঁওয়ারের। বিয়ে উপলক্ষ্যে গত শনিবার থর এক্সপ্রেসে চড়ে পাকিস্তান যাওয়ার কথা ছিল মহেন্দ্র এবং তাঁর পরিবারের লোকজনদের।

কিন্তু ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে সম্পর্কের টানাপোড়েনের কোপ পড়ে থর এক্সপ্রেসের যাত্রায়। রাজস্থানের মুনাবাও থেকে পাকিস্তানের খোখরাপাড় পর্যন্ত চলে থর এক্সপ্রেস। সমঝোতা এক্সপ্রেসের পাশাপাশি এই থর এক্সপ্রেস হচ্ছে ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে সংযোগকারী দ্বিতীয় ট্রেন। কিন্তু সম্প্রতি সমঝোতা এক্সপ্রেস সাময়িক বাতিলের পাশাপাশি থর এক্সপ্রেসকেও বাতিল করে দেয় দুই দেশ। ফলে বাতিল হয়ে যায় মহেন্দ্রর পাকিস্তান যাত্রা। এতেই বেজায় চটেছেন মহেন্দ্র।

আরও পড়ুন পুলওয়ামা মানে শুধুই রক্ত, হিংসা নয়, পুলওয়ামা মানে সম্প্রীতি এবং ভালোবাসাও!

অতি কষ্ট করে পাকিস্তানের ভিসা পেলেও সে দেশে যাওয়া হল না মহেন্দ্রর। এএনআইকে মহেন্দ্র বলেন, “ভিসার জন্য অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। মন্ত্রী গজেন্দ্র সিংহের উদ্যোগে পাঁচ জনের জন্য ভিসা পেয়েছিলাম। সেইমতো আত্মীয়দের কাছে বিয়ের আমন্ত্রণপত্রও পৌঁছে দেওয়া হয়েছিল।”

দুই দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই আবার বিয়ের পরিকল্পনা করা হবে বলে জানিয়েছেন মহেন্দ্র।

উল্লেখ্য, রাজস্থানের পাক সীমান্তবর্তী গ্রামের বাসিন্দাদের সঙ্গে পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের ভারত সীমান্তবর্তী গ্রামগুলির বাসিন্দাদের বিয়ে হওয়ার চল অনেক দিন ধরেই হয়ে আসছে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন