Mayawati
মায়াবতী। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: প্রচারের সময় কমিয়ে দেওয়ার ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়িয়ে নির্বাচন কমিশনকে তোপ দাগলেন উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বসপা নেত্রী মায়াবতী।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মায়াবতী বলেন, “নির্বাচন কমিশন কেন্দ্রের চাপে কাজ করছে। আজ রাত দশটার পর থেকে প্রচার বন্ধ করেছে কমিশন। কারণ এ দিন পশ্চিমবঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর দু’টি সভা রয়েছে। প্রচার যদি বন্ধ করার প্রয়োজন ছিল তা হলে তা বৃহস্পতিবার সকাল থেকে করা হল না কেন?”

অমিত শাহ ও নরেন্দ্র মোদী পরিকল্পনা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করেছেন। দেশের পক্ষে এটি একটি মারাত্মক প্রবণতা বলেই নিজের অভিমত ব্যক্ত করেন মায়াবতী।

উল্লেখ্য, অমিত শাহের রোড শো এবং সেখান থেকে তৈরি হওয়া হিংসা নিয়ে রাজ্য জুড়ে তোলপাড় চলছে। এই হিংসা থেকে বাদ পড়েননি বিদ্যাসাগরও। কলেজে ঢুকে যে ভাবে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা হয়েছে, সেটা বাঙালি কোনো ভাবেই মেনে নিতে পারছে না। গোটা ঘটনায় অভিযোগের আঙুল উঠেছে বিজেপির দিকে।

আরও পড়ুন শেষ দিনে জমজমাট ভোটের প্রচারে কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে

এই ঘটনার পরেই নড়েচড়ে বসে কমিশন। প্রায় নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিয়ে সংবিধানের ৩২৪ ধারা প্রয়োগ করে রাজ্যে। এর ফলে বৃহস্পতিবার রাত দশটা থেকেই প্রচারের কাজ বন্ধ করে দিতে হবে রাজ্যে। পাশাপাশি স্বরাষ্ট্র সচিব অত্রি ভট্টাচার্য ও এডিজি সিআইডি রাজীব কুমারকে পদ থেকে সরিয়ে দেয় নির্বাচন কমিশন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here