indian to executed in usa

হায়দরাবাদ: মামুলি কারণ নিয়ে ঝগড়া, আর তার পরেই চরম পরিণতি। এ ভাবেই জীবন শেষ হল হায়দরাবাদের এমবিএ ছাত্রী এক তরুণীর।

হায়দরাবাদের কম্পাল্লি অঞ্চলে একটি হোস্টেলে থাকত ওই তরুণী, বি হানিশা চৌধুরী। রবিবার সকালে প্রেমিক, হায়দরাবাদেরই যুবক দক্ষিত পটেলের সঙ্গে ভিডিও কলের মাধ্যমে কথা বলছিল হানিশার। একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যাওয়ার ব্যাপারে হানিশাকে বকাবকি করে দক্ষিত। পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, দক্ষিতের এই বকুনির পরে রেগে যায় হানিশা। এর পর দু’জনের মধ্যে কিছুটা কথা কাটাকাটি হয়। তার পরেই ভিডিও কলের মধ্যেই গলায় দড়ি দেয় হানিশা।

ভিডিও কলে হানিশা আত্মহত্যা করতে যাচ্ছে দেখেই হোস্টেলের দিকে রওনা হয় দক্ষিত। সেখানে পৌঁছে হানিশাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়। কিন্তু ততক্ষণে সব শেষ।

তবে ভিডিও কলের মধ্যেই হানিশা আত্মহত্যা করেছে কি না সে ব্যাপারে কোনো নিশ্চিত প্রমাণ নেই বলে জানিয়েছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। এই ব্যাপারে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছে হানিশার বাবা-মা।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন