Brinda Karat

ওয়েবডেস্ক: কর্মক্ষেত্রে যৌন হেনস্থা রোধী আইনের সঠিক প্রয়োগ করা হচ্ছে না দাবি তুলে ধিক্কার জানালেন সিপিএম নেত্রী বৃন্দা কারাত। তিনি দাবি করেন, আইন থাকলেও অধিকাংশ সংস্থা বা ক্ষেত্রে তার কোনো প্রয়োগ নেই।

সাম্প্রতিক প্রতিবাদের নয়া ভাষা #মি টু ঘিরে সারা দেশ উত্তাল। বিভিন্ন মহল থেকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তির বিরুদ্ধে গর্জে উঠছে এই #মি টু। এমনই একটা পরিস্থিতিতে সিপিএমের প্রবীণ নেত্রী সরব হলেন আইনের সদ্ব্যবহার প্রসঙ্গে। তিনি সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বলেন, “কোনো মহিলার তরফে সম্মতিসূচক ইঙ্গিত না মিললে তাঁর সঙ্গে যে কোনো রকমের যৌনতা মূলক ব্যবহারই যৌন হেনস্থা হিসাবে বিবেচ্য হয়ে থাকে। কিন্তু লজ্জার বিষয় এটাই যে, আইন থাকলেও বেশির ভাগ কর্ম ক্ষেত্রেই সেই আইনের কোনো প্রয়োগ হচ্ছে না”।


আরও পড়ুন: “টান মেরে খুলে দিয়েছিল আমার অন্তর্বাসের ফিতে”, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার মারাত্মক অভিযোগ!

দলের পলিট ব্যুরো এবং মহিলা সংগঠনের অন্যতম সদস্য বৃন্দা মনে করেন, পুরুষ শাসিত সংস্কৃতির সমস্ত ঢালকেই নারীরা ভেঙে দিচ্ছে। নারীরা যে শুধু মাত্র তাদের আনন্দদানের জন্য ব্যবহৃত যৌন বস্তু নয়, এমন ধারণা ক্রমশ বিস্তার লাভ করে চলেছে। কিন্তু আইন থাকলেও তা মোটেই যথাযথ ভাবে সহায়ক হচ্ছে না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন