কেরলে ‘মেট্রোম্যান’কে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে বেছে নিল বিজেপি

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: কেরল বিধানসভা নির্বাচনে ‘মেট্রোম্যান’ হিসাবে পরিচিত ই শ্রীধরনকে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে বেছে নিল বিজেপি।

কেরল বিজেপির রাজ্য সভাপতি কে সুরেন্দ্রন দলের একটি কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে এই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, “দল শীঘ্রই অন্যান্য প্রার্থীদের একটি তালিকাও প্রকাশ করবে”।

কেরলে জনপ্রিয় আমলা ই শ্রীধরনের গেরুয়া শিবিরে প্রবেশ বিজেপিকে যথেষ্ট শক্তিশালী করবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

৮৮ বছর বয়সি ই শ্রীধরন সংবাদমাধ্যমের কাছে আগেই জানিয়েছেন তিনি বিজেপিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে এক দিনে বিজেপিতে যাওয়ার এই সিদ্ধান্ত নেননি, তিনি রাজ্যের জন্য কাজ করতে চান।তাঁর কথায়, “কেরলে বিধানসভা নির্বাচনের পর বিজেপি যদি চায়, তা হলে আমি মুখ্যমন্ত্রী হতে রাজি। আমি মুখ্যমন্ত্রী না হলে যে যে কাজ করতে চাইছি, সেগুলির উপর গুরুত্ব দিতে পারব না। আমি রাজ্যপাল হতে চাই না। কারণ, সেটা পুরোপুরি সাংবিধানিক পদ। কোনো ক্ষমতাই নেই”।

Shyamsundar

বুধবারই পুনর্গঠিত পালারিভট্টম ফ্লাইওভার-এর চূড়ান্ত পরিদর্শনে এসেছিলেন ই শ্রীধরণ। তখনই তিনি জানিয়েছিলেন, বৃহস্পতিবারই শেষবার দিল্লি মেট্রো রেল কর্পোরেশনের ইউনিফর্ম পরবেন। ডিএমআরসি থেকে পদত্যাগ করেই তিনি বিধানসভা নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন জমা দেওয়ার কথা বলেছিলেন।

১৯৩২ সালের ১২ জুন কেরলের পালাক্কড়ে জন্ম শ্রীধরনের। অন্ধ্রপ্রদেশের কাকিনাড়ার সরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ থেকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ডিগ্রি লাভ করেন। এর পরে ভারতীয় রেলে যোগ দেন। একে একে দিল্লি মেট্রো, কোচি মেট্রো, লখনউ মেট্রোয় কাজ করেছেন তিনি।

নিজের জয় এবং কেরলে বিজেপির ক্ষমতা দখলে আত্মবিশ্বাসী শ্রীধরন বলেছেন, “আমি যে কোনও কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়াই করতে রাজি। তবে আমি এখন যেখানে আছি, সেই মলপ্পুরমের পোন্নানি থেকে বেশি দূরে কোনও কেন্দ্র না হলেই ভালো হয়”।

আরও পড়তে পারেন: রাজ্যের ৯৭ বিধায়ক কোটিপতি, ধনীর তালিকায় প্রথম তিন শাসক দলের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন