জরুরি অবস্থার বর্ষপূর্তি, তরজায় মোদী-মমতা

0
Mamata and Modi

ওয়েবডেস্ক: ১৯৭৫ সালের আজকের দিনেই জরুরি অবস্থার ঘোষণা করেছিলেন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী। সেই ঘটনার বর্ষপূর্তিতে এ দিন টুইটারে তরজায় জড়ালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মঙ্গলবার সকালেই টুইট করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে তিনি বলেন, “গত পাঁচ বছর দেশে ‘সুপার ইমার্জেন্সি’ চলেছে। ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে দেশের স্বশাসিত প্রতিষ্ঠানগুলিকে বাঁচানোর জন্য লড়াই চালাতে হবে।”

এর কয়েক ঘণ্টা পরেই টুইট করেন মোদীও। মোদী তাঁর টুইটার হ্যান্ডেলে জরুরি অবস্থার সময়কালীন একটি ভিডিও পোস্ট করেন। সেই ভিডিওতে তুলে ধরা হয় বিক্ষোভ, মিছিল, পুলিশের লাঠিচার্জ, গ্রেফতার, সাংবাদমাধ্যমের অধিকার খর্ব-সহ একাধিক ঘটনার কোলাজ। প্রধানমন্ত্রী নিজের কণ্ঠে সেই সব ছবির ব্যাখ্যা দিয়েছেন। বলেছেন, সেই সময়ে নির্মম অত্যাচার চলেছে। এর থেকে বড়ো হুমকি কী হতে পারে? তবে, গণতন্ত্রের মাথা কখনোই হেঁট হয়নি। জয়প্রকাশ নারায়ণ, এলকে আডবাণী, অটলবিহারী বাজপেয়ী-সহ যে সব নেতা ওই সময়ে আন্দোলন করে জেলে গিয়েছেন, তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন মোদী।

আরও পড়ুন আউলি পরিষ্কার করার যাবতীয় খরচাপাতি বহন করতে রাজি হল গুপ্তা পরিবার

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ এ দিনের স্মৃতি তুলে বলেন রাজনৈতিক স্বার্থে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছিল। কালো অধ্যায় বলে ব্যাখ্যা করেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। বিজেপির কার্যনির্বাহী সভাপতি জয়প্রকাশ নাড্ডা বিজেপি ও রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের নেতাদের বলিদান প্রতি সম্মান জানান। তবে প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর পার্ষদদের এই পদক্ষেপকে কটাক্ষ করেন বিরোধীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here