fake news smriti irani narendra modi

নয়াদিল্লি: আগ বাড়িয়ে একটু বেশি খেলে ফেলেছিলেন স্মৃতি ইরানি। বিপদ বুঝতে পেরে তাঁর রাশ টেনে ধরলেন নরেন্দ্র মোদী। বিভিন্ন মহল থেকে চাপের পরে অবশেষে ঢোক গিলতে বাধ্য হল কেন্দ্র। ভুয়ো খবর রোখা সংক্রান্ত বিতর্কিত নির্দেশিকা বাতিল করে দেওয়ার নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

সূত্রের খবর, স্মৃতি ইরানির তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রককে প্রধানমন্ত্রীর অফিস নির্দেশ দিয়েছে, ভুয়ো খবর সংক্রান্ত যাবতীয় ব্যাপার যেন ভারতের প্রেস কাউন্সিলের ওপরে ছেড়ে দেওয়া হয়। এই বিষয়ে এখন থেকে তারাই পদক্ষেপ নেবে।

উল্লেখ্য ‘ভুয়ো খবর’ প্রচার করলে কড়া শাস্তির বিধান দিয়েছিল কেন্দ্র। সোমবার স্মৃতি ইরানি জানিয়েছিলেন, ‘ভুয়ো খবর’ প্রমাণ হলে সাংবাদিকের সরকারি স্বীকৃতি এ বার কেড়ে নেওয়া হবে। প্রথম দফায় ৬ মাসের জন্য। পরের বার এক বছর। তৃতীয় বার একই কাজ করলে পাকাপাকি।

এই নির্দেশিকার পরেই সমালোচনার ঝড় ওঠে। এই নির্দেশিকার মাধ্যমে সংবাদমাধ্যমের ওপরে সরকারি নিয়ন্ত্রণের পথ আরও প্রশস্ত হবে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিরা। একই মত ছিল বিরোধীদেরও।

শেষ পর্যন্ত বিক্ষোভের তীব্রতা বুঝে পিছু হটল কেন্দ্র। প্রত্যাহৃত হল বিতর্কিত নির্দেশিকা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন