Modi asking

নয়াদিল্লি: এত দিন বিরোধী রাজনৈতিক দলের প্রশ্নবাণে বিদ্ধ হতেন তাঁরা। এ বার খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজের মন্ত্রিসভার সদস্যদের প্রশ্ন করছেন, বিগত চার বছরে নিজের মন্ত্রকের আওতাধীন সংস্থাগুলিতে ঠিক কত জনের চাকরি হয়েছে? তবে শুধু মনগড়া উত্তর মুখে বললেই হবে না। সুস্পষ্ট পরিসংখ্যান-সহ লিখিত আকারে সেই প্রশ্নের উত্তর জানানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

বছর ঘুরলেই দেশের সাধারণ নির্বাচন। এখন থেকেই আঁটঘাট বেঁধে নামতে চাইছেন মোদী। আগামী লোকসভা ভোটের ঘুঁটি সাজাতে কর্মসংস্থানের বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দিতেই এমন পরিকল্পনা বলে অনুমান করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের নির্দেশ দিয়েছেন, গত চার বছরে তাঁদের মন্ত্রক ঠিক কী কী প্রকল্প এবং কর্মসূচি নিয়েছে তার বিস্তারিত বিবরণ-সহ সেখান থেকে কত সংখ্যক কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হয়েছে তার পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তৈরির।

আরও পড়ুন: মহেশতলা উপ-নির্বাচনের প্রার্থী বাছাই নিয়ে অন্তর্কলহ বাড়ছে রাজ্য বিজেপিতে

উল্লেখ্য, ২০১৪-র ভোট প্রচারে মোদী প্রায় সর্বত্রই একটি কথা বলেতেন, তা হল তিনি ক্ষমতায় এলে বছরে ১ কোটি বেকারের হাতে কাজ তুলে দেবেন। এই প্রতিশ্রুতি আদৌ রক্ষা পেয়েছে কি না, সে বিষয়ে রাজনৈতিক ভাবে বিজেপি কৃতিত্ব আদায় করলেও সরকারের কাছে তেমন কোনো জোরালো তথ্য নেই। যে কারণে মোদী চাইছেন, পরের বার লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে এই বিষয়টি নিয়ে তাঁকে যাতে বিরোধীদের খোঁচা না খেতে হয়, তার আগাম ব্যবস্থা করে রাখতে।

আগামী ২৬ মে মোদী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে চার বছরের মেয়াদ পূরণ করতে চলেছেন। এই সময়কালে দেশের একাধিক আর্থিক সংস্কারে হাত দিয়ে জিডিপি বৃদ্ধির হারও বাড়িয়েছেন অনেকটাই। কিন্তু দেশের যুব সম্প্রদায়ের হাতে কাজ না থাকলে সেই আর্থিক সংস্কারের মূল্য যে নিরর্থক, তা তাঁর থেকে বেশি কেই-বা বোঝেন!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here