ওয়েবডেস্ক: ২৫ বছরের মধ্যে সব থেকে ভয়াবহ বর্ষা দেখল ভারত। বৃষ্টির পরিমাণে ভেঙে গেল আড়াই দশকের রেকর্ড। সেই সঙ্গে দেশ জুড়ে চলেছে মৃত্যু মিছিল।

কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে এ বার দেশে গড় বৃষ্টি হয়েছে স্বাভাবিকে থেকে ১০ শতাংশ বেশি। শেষবার এমন বৃষ্টি হয়েছিল ১৯৯৪ সালে। শুধু তাই নয়, এ বার বর্ষায় যে ভাবে মানুষের মৃত্যু হয়েছে তাও নজিরবিহীন।

সরকারি তথ্য বলছে এ বার বর্ষা মোট ১৬৭৩ জনের প্রাণ কেড়েছে। গত কয়েকদিনে শুধুমাত্র বিহার এবং উত্তরপ্রদেশে মৃত্যু হয়েছে ১৪৪ জনের।

আবহাওয়া দফতর তাজ্জব কারণ যে এ বার জুনে বর্ষা যা হাল ছিল, তাতে কোনো ভাবেই এই ধরনের রেকর্ড করা সম্ভব ছিল না। আবহাওয়া দফতরের রিপোর্ট বলছে, এ বার জুনে দেশে বর্ষা ছিল স্বাভাবিকের ৩০ শতাংশ কম। জুলাই, আগস্ট এবং সেপ্টেম্বরে তা স্বাভাবিকের থেকে যথাক্রমে ৫, ১০ এবং ৫২ শতাংশ বেশি হয়েছে।

আরও একটা অবাক করা ঘটনা হয়েছে যে শুরুর দিকে বৃষ্টিহীন থাকা অঞ্চলগুলি বন্যার কবলে পড়া। এর মধ্যে অন্যতম গুজরাত। জুলাইয়ের মাঝামাঝি পর্যন্ত এই রাজ্যে গড় বৃষ্টির ঘাটতি ছিল ৫০ শতাংশের বেশি।

কিন্তু গুজরাত মরশুম শেষ করেছে প্রায় ৫০ শতাংশ বাড়তি বৃষ্টি নিয়ে। এত কম সময়ে এত বৃষ্টি হলে যা হওয়ার তাই হয়েছে। ব্যাপক বন্যার মুখে পড়েছে রাজ্যটি।

আরও পড়ুন বেনজির সিদ্ধান্ত! এগিয়ে এল জয়েন্ট এন্ট্রাস পরীক্ষা

কেরলও তাই। কেরল মরশুম শেষ করেছে ১৩ শতাংশ বাড়তি বৃষ্টি নিয়ে। কিন্তু জুলাইয়ের শেষেও তাঁর ঘাটতি ছিল ৪৫ শতাংশ। আগস্টে এমন বৃষ্টি হল যে আরও একবার ভয়াবহ বন্যার মুখোমুখি পড়ল সে।

পশ্চিমবঙ্গ, বিশেষত দক্ষিণবঙ্গই বা কম কী! আগস্টের শুরুতে ৫০ শতাংশ ঘাটতি থাকা দক্ষিণবঙ্গ মরশুম শেষ করেছে মাত্র কুড়ি শতাংশ ঘাটতি নিয়ে। ফলে এখানেও বন্যার ভ্রূকুটি। জলবন্দি একাধিক জেলা।

এ বার বর্ষায় বন্যার সম্মুখীন হয়েছে কেরল, মহারাষ্ট্র, কর্নাটক, গুজরাত, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, বিহার, ছত্তীসগঢ়, অসম, মধ্যপ্রদেশ এবং উত্তরপ্রদেশ। এক মরশুমে এতগুলো রাজ্য একসঙ্গে বন্যা কবলিত হয়ে পড়ার নজিরও বিশেষ নেই।

সব মিলিয়ে এ বারের বর্ষা অন্যবারের থেকে এক্কেবারেই আলাদা।

আরও একটা রেকর্ড করে ফেলেছে সে। একশো বছরেরও বেশি ইতিহাসে এই প্রথম সব থেকে দেরিতে শুরু হবে বর্ষার বিদায়যাত্রা। ১৯৬১ সালে বর্ষা বিদায়যাত্রা শুরু করেছিল ১ অক্টোবর। এ বার সেই রেকর্ডও ভেঙে গেল।

তবে স্বস্তির খবর এই যে বর্ষার বিদায়যাত্রা শুরু হওয়ার ইঙ্গিত পেতে শুরু করেছে কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর। তারা জানিয়েছে ১০ অক্টোবর থেকে বর্ষা বিদায় নিতে শুরু করবে। তার প্রাথমিক ইঙ্গিত হিসেবে বৃহস্পতিবার থেকেই সমগ্র উত্তর ভারত এবং গুজরাতে উল্লেখযোগ্য ভাবে কমে যাবে বৃষ্টিপাত।

বর্ষা শেষে এখন জম্পেশ শীতের অপেক্ষা শুরু হবে দেশবাসীর।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন