‘সন্ত্রাসবাদের ধাত্রীভূমি’: নাম না করে ব্রিক্স সম্মেলনে পাকিস্তানকে আক্রমণ মোদীর

0

সন্ত্রাসবাদের প্রশ্নে পাকিস্তানকে আন্তর্জাতিক মঞ্চে একঘরে করার পথে আরও এক পা হাঁটলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গেয়ায় রবিবার ব্রিক্সের অন্তর্গত দেশগুলির রাষ্ট্রপ্রধানদের বৈঠকে মোদী নাম না করে পাকিস্তানকে ‘সন্ত্রাসবাদের ধাত্রীভূমি’ বলে চিহ্নিত করলেন। মোদী বলেন, “আমাদের অঞ্চলে সন্ত্রাসবাদ শান্তি, সুরক্ষা ও উন্নয়নের পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। দুঃখের বিষয় হল, যে দেশটি সন্ত্রাসবাদের ধাত্রীভূমি, সেটি ভারতের প্রতিবেশী। গোটা দুনিয়ার সন্ত্রাসের ছকটি এই ধাত্রীভূমির সঙ্গে যুক্ত”।

শুধু এটুকু বলেই পাকিস্তানকে আক্রমণ শেষ করেননি মোদী। উপস্থিত নেতাদের কাছে তাঁর ব্যাখ্যা, সমস্যাটা শুধু নিজের দেশের মাটিতে ক্রিয়াশীল সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীগুলিকে অর্থ ও সমর্থন দেওয়া নয়। মোদী বলেন, “এই দেশটি শুধু যে সন্ত্রাসবাদীদের আশ্রয় দেয়, তাই নয়। সে একটা মানসিকতাকে লালনপালন করে- যে মানসিকতা শেখায়, রাজনৈতিক লাভের জন্য সন্ত্রাসবাদ ন্যায়সঙ্গত। এটা এমন একটা মানসিকতা, যাকে আমরা নিন্দা করি। এর বিরুদ্ধে ব্রিক্সের অবস্থান নেওয়া পদক্ষেপ করা প্রয়োজন। এই আতঙ্কের বিরুদ্ধে ব্রিক্সকে অবশ্যই একসুরে কথা বলতে হবে”। মোদীর শেষের এই কথাটি চিনকে লক্ষ করে বলা, এমনই মনে করছে কূটনৈতিক মহল। কারণ, জৈশ ই মহম্মদের প্রধান মাসুদ আজহারকে ভারত ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী’ তকমা দেওয়ার দাবি করলেও, চিন তার বিরোধিতা করেছিল।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন