মধ্যপ্রদেশের বিজেপি নেতা।
মধ্যপ্রদেশের বিজেপি নেতা রামরতন পায়ল সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন। ছবি Twitter থেকে নেওয়া।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: “যান না তালিবান শাসিত আফগানিস্তানে, পেট্রোল সস্তায় পেয়ে যাবেন” – পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি ও জ্বালানি তেলের ক্রমবর্ধমান দাম বাড়া নিয়ে এক সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরে এমনই উপদেশ দিলেন মধ্যপ্রদেশ বিজেপির এক শীর্ষ।

বিজেপি নেতাটির নাম রামরতন পায়ল। তিনি মধ্যপ্রদেশের কাটনি জেলা শাখার প্রধান। সেই নেতা আরও বলেন, এমন সময়ে মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে প্রশ্ন করা হচ্ছে যখন কোভিড অতিমারির তৃতীয় ঢেউ দেশকে আঘাত করতে চলেছে।

তবে সেই বিজেপি নেতা ও তাঁকে ঘিরে থাকা সাঙ্গোপাঙ্গরা কোভিডের স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে যে কতটা সচেতন তা সেখানকার ছবি দেখলেই মালুম হয়ে যায়। কোভিড সংক্রমণ ঠেকাতে সরকার যেখানে বার বার স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কথা বলছে, তখন তাঁদের সে সব মানার বালাই নেই। ওই নেতা ও তাঁর সাঙ্গোপাঙ্গদের কারওরই মুখে মাস্ক ছিল না, শারীরিক দূরত্ববিধি মানা তো দূরের কথা।

কী বললেন ওই বিজেপি নেতা

‘হিন্দুস্তান টাইমস’-এর খবর, এ নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, এক জন স্থানীয় সাংবাদিক দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি ও পেট্রোলের দাম নিয়ে ওই বিজেপি নেতাকে প্রশ্ন করছেন। সেই প্রশ্নে আপাতদৃষ্টিতে মেজাজ হারিয়ে ওই নেতা বলছেন, “তালিবানের কাছ থেকে নিন। আফগানিস্তানে পেট্রোল প্রতি লিটার ৫০-এ বিকোচ্ছে। কিন্তু ব্যবহার করার কেউ নেই। যান আর সেখান থেকে আপনার রিফিল করিয়ে নিন। এখানে অন্তত নিরাপত্তা আছে।”

চড়া মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আরও প্রশ্ন করা হলে ওই নেতা বলেন, “করোনাভাইরাসের তৃতীয় ঢেউ দেশকে আঘাত করতে পারে। আর এই সময় আপনি পেট্রোল নিয়ে কথা বলছেন। দেখতে পাচ্ছেন না, দেশ কী সংকটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে।”

দেশের বেশির ভাগ জায়গায় পেট্রোলের দাম লিটারপ্রতি ১০০ টাকা ছাড়িয়ে গিয়েছে। ডিজেল ৯০-এর ঘর ছুঁয়েছে। সদ্য সমাপ্ত সংসদের অধিবেশনে দেশে সামগ্রিক মূল্যবৃদ্ধি ও জ্বালানির ক্রমবর্ধমান দাম নিয়ে বিরোধীপক্ষ বার বার আলোচনা চেয়ে ব্যর্থ হয়েছে।

এমপি বিজেপি নেতার সাথি

তবে রামরতন পায়লই প্রথম বিজেপি নেতা নন, যিনি সাধারণ মানুষকে আফগানিস্তানে যাওয়ার পরামর্শ দিলেন। তাঁর দলের সাথি বিহারের হরিভূষণ ঠাকুরও একই পরামর্শ দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, যাঁরা ভারতে থাকতে ভয় পান, তাঁরা যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটায় যেতে পারেন। ওখানে পেট্রোল-ডিজেল সস্তা।

এনডিটিভি-র রিপোর্টে বলা হয়, বিহারের বিসফি কেন্দ্র থেকে নির্বাচিত ওই বিজেপি বিধায়ক বলেন, যেখানে ২০ বছর পরে তালিবান ক্ষমতায় এসেছে, সেই প্রতিবেশী দেশের সংকটের কোনো প্রভাব ভারতে পড়বে না। “তবে এখানে থাকতে যাঁরা ভয় পান তাঁরা সেখানে যেতে পারেন…পেট্রোল-ডিজেল ওখানে সস্তা। তবে ওখানে এক বার গেলে তাঁরা ভারতের মূল্য বুঝতে পারবেন।”  

আরও পড়তে পারেন    

ফের বাড়ল রান্নার গ্যাসের দাম, দেখে নিন কোথায় কত হল

সস্তা হবে রান্নার তেল, ১১ হাজার কোটি টাকার নতুন প্রকল্পে অনুমোদন মোদী সরকারের    

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন