shivraj singh chauhan

ভোপাল: যুক্তরাষ্ট্রের থেকে মধ্যপ্রদেশের রাস্তার অবস্থা অনেক ভালো, কিছু দিন আগে ওয়াশিংটনে এই দাবি করে বিদ্রুপের পাত্র হয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিংহ চৌহান। কিন্তু তিনি দমেননি। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন এবং ‘আরও কিছু দেশের’ থেকে তাঁর রাজ্যের অবস্থা কতটা ভালো তা বোঝাতে উঠে পড়ে লেগেছেন তিনি।

মধ্যপ্রদেশের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে রাজ্য স্তরের একটি সভায় বক্তব্য রাখছিলেন শিবরাজ। সেখানে তিনি বলেন, যাঁদের মধ্যে এখনও ক্রিতদাসী মনোভাব এখনও রয়েছে, তারাই ভাবে নিজের দেশের থেকে অন্যের দেশ ভালো।

তিনি বলেন, “আমাদের মধ্যপ্রদেশের অবস্থা যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন এবং আরও বেশ কিছু দেশের থেকে ভালো। সব সময় ইতিবাচক মানসিকতা থাকা গুরুত্বপূর্ণ। নিজের রাজ্যকে নিয়ে গর্ব করা উচিত। যাঁদের মধ্যে এখনও ক্রীতদাসী মানসিকতা রয়েছে, তারাই মনে করে অন্যের দেশ বেশি ভালো।”

আরও পড়ুন: ‘মধ্যপ্রদেশের রাস্তার অবস্থা ওয়াশিংটনের থেকে ভালো’, মন্তব্য করেই টুইটারে বিদ্রুপের পাত্র শিবরাজ সিংহ

রাজ্যে দ্রুতগামী উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, রাজ্যে বৃদ্ধির হার এখন দুই সংখ্যায় পৌঁছে গিয়েছে। তাঁর মতে, মধ্যপ্রদেশের মানুষই রাজ্যকে বিশ্বের মধ্যে শ্রেষ্ঠ করে তুলবে। তিনি বলেন, “রাজ্যকে দুর্নীতিমুক্ত, সন্ত্রাসবাদমুক্ত এবং দারিদ্রমুক্ত করতে রাজ্যের সাড়ে সাত কোটি মানুষ বদ্ধপরিকর। রাজ্যকে আমরা বিশ্বের মধ্যে শ্রেষ্ঠ করে তুলবই।”

কিছু দিন আগেই ওয়াশিংটনে একটি অনুষ্ঠানে বন্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, “বিমানবন্দর থেকে নেমে আমি যখন এই অনুষ্ঠানে আসছিলাম তখন আমার মনে হচ্ছিল এখানকার রাস্তার অবস্থার থেকে আমার রাজ্য মধ্যপ্রদেশের রাস্তার অবস্থা অনেকটাই ভালো।” এই মন্তব্যের পরেই টুইটারে বিদ্রুপের শিকার হন শিবরাজ।

রাস্তার অবস্থা নিয়ে শিবরাজকে তোপ দাগে বিরোধী কংগ্রেস। কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া বলেন, “শিবরাজ তো তখনই রাস্তার প্রকৃত অবস্থা বুঝবেন যখন তিনি হেলিকপ্টার থেকে নামবেন।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here