mumbai heatwave

মুম্বই: সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকার কথা সাড়ে ৩৩ ডিগ্রি, কিন্তু রবিবার তা রেকর্ড করা হল ৪১ ডিগ্রি, অর্থাৎ স্বাভাবিকের থেকে আট ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি। এটা মুম্বইয়ের আবহাওয়ার সামগ্রিক চিত্র।

মার্চের এই দহনেই ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা মুম্বইবাসীর। এখনও তো তাদের সামনে গোটা গরমকালটাই পড়ে রয়েছে। শেষ বার মুম্বইয়ে যখন এই পর্যায়ে পারদ চড়েছিল সেটা মার্চই ছিল। ২০১১-তে মার্চের একদিন তাপমাত্রা উঠে গিয়েছিল ৪১.৩ ডিগ্রিতে। সোমবার সেই রেকর্ড মুম্বই ভেঙে দেয় কি না সেটাই দেখার।

শুধু মুম্বই নয়, তীব্র গরমে নাজেহাল অবস্থা সমগ্র গুজরাত এবং মহারাষ্ট্রের কোঙ্কন উপকূলে। গুজরাতে অমদাবাদ, রাজকোট, ভদোদরাতেও পারদ চল্লিশ ছাড়িয়ে গিয়েছে। তবে সবার ওপরে এখন মুম্বই। বাণিজ্যনগরীর পারদোত্থানে পেছনে চলে গিয়েছে পুনে। অথচ গরমে পুনের তাপমাত্রা মুম্বইয়ের থেকে অনেক বেশি থাকাই দস্তুর।

আবহাওয়াবিদরা এই অস্বাভাবিক গরমের জন্য সমুদ্র থেকে হাওয়া বন্ধ হয়ে যাওয়াকেই দায়ী করেছেন। মুম্বই আবহাওয়া দফতরের এক আধিকারিক বলেন, “মুম্বইয়ে সাধারণত পশ্চিমী হাওয়া বয়। সমুদ্র থেকে ওই হাওয়া বয়ে আসায় আবহাওয়া অনেক ঠান্ডা থাকে। কিন্তু গত কয়েক দিন ধরে সেই হাওয়া বন্ধ। উলটে বইছে পুবালি হাওয়া, যেটা গরম।”

তবে কিছুটা স্বস্তির খবরও রয়েছে এর মধ্যে। মঙ্গলবার থেকে ফের স্বাভাবিকের কোঠায় নেমে আসতে পারে পারদ। তবে আপাতত শুকনো আবহাওয়াই চলছে সমগ্র পশ্চিম ভারত জুড়ে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন