গুজব গো-হত্যার, ঝাড়খণ্ডে ক্ষিপ্ত জনতার হাতে নিগৃহীত মুসলিম দুধ ব্যবসায়ী

0
314

রাঁচি: যত দিন যাচ্ছে ভারতের বর্তমান অসহিষ্ণু রূপ ক্রমশ বেড়ে যাচ্ছে। কিছু দিন আগেই গো-মাংস নিয়ে যাওয়ার গুজবে উন্মত্ত জনতার হাতে খুন হয়েছিলেন হরিয়ানার বছর ষোলোর যুবক। এ বার গো-হত্যার গুজবে ক্ষিপ্ত জনতার হাতে নিগৃহীত হলেন এক মুসলিম দুধ ব্যবসায়ী।

মঙ্গলবার রাঁচি থেকে আড়াইশো কিলোমিটার দূরে বারিয়াবাদ গ্রামে বছর পঞ্চান্নর দুধ ব্যবসায়ী উসমান আনসারির বাড়ির কাছে একটি মাথাহীন গরুর দেহ দেখতে পান কয়েক জন গ্রামবাসী। মুহূর্তের মধ্যে খবর ছড়িয়ে পড়ে যে গো-হত্যা করেছেন আনসারি। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই অন্তত এক হাজার জনের ক্ষিপ্ত জনতার দল আনসারির বাড়িতে হামলা করে। এই দলে স্বঘোষিত কয়েক জন গো-রক্ষক ছিল বলেও খবর। তাঁর বাড়িতে আগুনও লাগিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

তবে খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় বিশাল পুলিশবাহিনী। আনসারি এবং তার পরিবারের সদস্যদের উদ্ধার করার সময়ে তাদের সঙ্গে ক্ষিপ্ত জনতার সংঘর্ষও বাধে। ঘটনায় কয়েক জন পুলিশকর্মী আহত হন। গিরিডির পুলিশ সুপার অখিলেশ ভারিয়ার বলেন, “ক্ষিপ্ত জনতার হাতে নিগৃহীত ব্যক্তি ও তার পরিবারের সদস্যদের উদ্ধার করার জন্য লাঠি চার্জ করতে হয়েছে পুলিশকে। শুন্যে গুলিও চালাতে হয়েছে।” তিনি বলেন ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ২৫ জনকে আটক করা হয়েছে।

স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে আনসারির। তার পরিবারের সদস্যদের পুলিশি নিরাপত্তায় নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। উত্তপ্ত পরিস্থিতি শান্ত করার জন্য ওই গ্রামে পুলিশ এবং সিআরপিএফ জওয়ানদের মোতায়েন করা হয়েছে। তবে ওই আনসারিই গো হত্যা করেছেন কিনা সে ব্যাপারে এখনও কিছু জানা যায়নি পুলিশের তরফ থেকে।

গত মাসেই ছেলেধরার গুজবে এই ঝাড়খণ্ডেই ক্ষিপ্ত জনতার হাতে খুন হয়েছিলেন ৫ জন মুসলিম-সহ ন’জন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া গুজবের ভিত্তিতেই এই উন্মত্ত জনতার তাণ্ডব বলে জানিয়েছে পুলিশ।

 

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here