narendra modi and imran khan

নয়াদিল্লি: পাকিস্তান তেরহিক-ই-ইনসান (পিটিআই) প্রধান ইমরান খানকে ফোন করে জয়ের শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রায় সপ্তাহদুয়েক পরে সেই শুভেচ্ছাবার্তার প্রত্যুত্তর পৌঁছাল নয়াদিল্লিতে।

এ দিন নয়াদিল্লিতে পাকিস্তানের হাইকমিশনার সোহেল মেহমুদ বলেন, দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক যাতে ইতিবাচক দিকে এগোয়, সে দিকে লক্ষ্য রাখবেন নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিতে যাওয়া  ইমরান খান। পাকিস্তানের ৭২তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি বলেন, পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পরই ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের প্রধান ইমরান খানকে ফোন করে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন। ওই ঘটনা দুই দেশের সম্পর্ককে অনেকটাই এগিয়ে নিয়ে সাহা্য্য করবে। এই সম্পর্ক যাতে প্রসারিত হয়, সে দিকে লক্ষ্য রাখবে পাকিস্তান।

সোহেলের বক্তব্যের পর ভারতীয় বিদেশমন্ত্রকের তরফেও জানানো হয়, দেশের পার্শ্ববর্তী এলাকায় শান্তি বজায় রাখার অংশগ্রহণকে মোদী নিজের কর্তব্য বলে মনে করেন।

এ দিন পাকিস্তানের জাতীয় সংগীতের আবহের সে দেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন সোহেল। পাকিস্তান হাইকমিশন স্কুল সে দেশের দেশাত্মবোধক সংগীত পরিবেশনও করে।

আরও পড়ুন: টাকার দামে রেকর্ড পতন: শুধু মন্দ নয়, এক দিক থেকে খুবই ভালো!

উল্লেখ্য, গত ২৫ জুলাই পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ফলাফল ঘোষণার পর গত ৩০ জুলাই মোদী ইমরানকে ফোন করেন। বিভিন্ন কারণে ইমরানের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান পিছিয়ে গেলেও ওই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে এ দেশের বেশ কয়েকজন স্বনামধন্য ব্যক্তিত্বকে। আগামী ১৮ আগস্ট তিনি শপথ নিতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন