‘সন্ত্রাসের রফতানি’র ব্যাপারে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। লাওসে অনুষ্ঠিত আসিয়ান সম্মেলনে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পরোক্ষে তোপ দেগে মোদী বলেন, সন্ত্রাসবাদ প্রত্যেকটি দেশের প্রধান সমস্যা। সব দেশের উচিত ঐক্যবদ্ধ হয়ে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করা।

১৪তম আসিয়ান-ভারত শীর্ষ সম্মেলনে মোদী বৃহস্পতিবার বলেন, সন্ত্রাসবাদের পাশাপাশি ঘৃণ্য মতাদর্শের ও হিংসার মাধ্যমে বিশ্বে বাড়তে থাকা চরমপন্থাও যথেষ্ট উদ্বেগের বিষয়।

মোদী বলেন, “সন্ত্রাসবাদের রফতানি, চরমপন্থার বাড়বাড়ন্ত আর ছড়িয়ে পড়া হিংসা এখন আমাদের দেশগুলির সব থেকে বড়ো সমস্যা। এই সমস্যা স্থানীয়, আঞ্চলিক এবং সংক্রামক। আসিয়ানের সাথে আমাদের অংশীদারিত্বের সুবাদে সমন্বয় আর সহযোগিতার মাধ্যমে এই সমস্যার চেষ্টা করতে হবে”। উল্লেখ্য গত সোমবার, জি-২০ সম্মেলনেও পাকিস্তানকে নাম না করে তীব্র আক্রমণ করেন মোদী। সন্ত্রাসবাদ ছাড়াও আসিয়ানে সাইবার নিরাপত্তা প্রসঙ্গে সহযোগিতার কথাও বলেন প্রধানমন্ত্রী।

দশ দেশের এই আসিয়ান সম্মেলনে ভারতের ‘লুক-ইস্ট’ নীতির কথাও বলেন মোদী। মোদী আরও বলেন, “এই অঞ্চলে স্থিতাবস্থা, শান্তি আর সমৃদ্ধি নিয়ে আসার লক্ষ্য আমাদের”। ভারতের আর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলির মধ্যে ডিজিটাল সংযোগ বৃদ্ধি করার কথাও এ দিন শোনা যায় মোদীর মুখে। “বিশ্বব্যাপী আমদানি-রফতানির লাইফলাইন হল সমুদ্র”, এ কথা মনে করিয়ে সমুদ্রকে রক্ষা করার ডাক দেন প্রধানমন্ত্রী।

বক্তব্য শেষ করার সময় মোদী বলেন, “আসিয়ানের সাথে ভারতের অংশীদারিত্বের তিনটে স্তম্ভ — নিরাপত্তা, অর্থনীতি আর আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে ভালো উন্নতি হয়েছে। আমাদের অর্থনৈতিক আদানপ্রদান আরও গভীরতর হবে”।  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here