মহারাষ্ট্রে বিরোধী জোটকে ছত্রভঙ্গ করতে মোক্ষম চাল মোদীর?

0
narendra modi
ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: মহারাষ্ট্রে শিবসেনা আর কংগ্রেসের হাত মেলানোর জন্য অগ্রানি ভূমিকা যারা পালন করছে, আচমকা সেই এনসিপির ভূয়সী প্রশংসা করে সবাইকে চমকে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

রাজ্যসভার আড়াইশোতম অধিবেশনের প্রথম দিন স্মরণীয় করতে সোমবার দুপুর দুটো থেকে একটি বিশেষ আলোচনা শুরু হয়। সেখানেই বক্তৃতা দিতে গিয়ে এনসিপিকে প্রশংসায় ভরিয়ে দেন মোদী।

মোদী বলেন, “আজ আমি দুটো দলের কথা বিশেষ করে উল্লেখ করব। তারা হচ্ছে এনসিপি এবং বিজু জনতা দল।”

মোদী বলে চলেন, “এই দুটি দল সংসদের সব নিয়ম ঠিকঠাক পালন করে গিয়েছে। তারা কখনই (বিক্ষোভ দেখাতে) ওয়েলে নামেনি। সব দল, এমনকি আমার দলকেও এই দুই দলের থেকে অনেক কিছুই শিখতে হবে।”

সংসদে বিক্ষোভ দেখানো এবং অধিবেশনের মধ্যেই স্লোগান দেওয়া প্রসঙ্গে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই কথাগুলি বলেন মোদী।

এমন একটা সময়ে মোদী এনসিপিকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিলেন, যখন তাদের প্রধান নেতা শরদ পাওয়ার শিবসেনা-সহ বিজেপি বিরোধী শক্তিকে এক করে অবিজেপি সরকার তৈরি করার প্রাণপণ চেষ্টা করে চলেছেন।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অনেকের ধারণা কেন্দ্র থেকে এনসিপি প্রধানকে চাপ দেওয়া হচ্ছে তিনি যাতে এই বিরোধী জোটের ব্যাপারে বেশি না এগোন। এমনটা হলে, তাঁদের দলের অনেকের ওপরেই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার শাস্তির খাঁড়া নেমে আসতে পারে বলেও অনেকের ধারণা। এরই মধ্যে শরদ পাওয়ারকে কিছুটা কাছে টানারও চেষ্টা মোদী করলেন বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন অনশনের চতুর্থ দিনে অসুস্থ চার পার্শ্বশিক্ষক, আশঙ্কাজনক এক

পুরো ব্যাপারটাই যে মহারাষ্ট্রের এককাট্টা বিরোধীদের ছত্রভঙ্গ করার জন্য মোদীর চাল, সেটা রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশ মেনে নিচ্ছেন।

এ দিকে, সোমবার থেকে বিরোধী আসনে বসা শুরু করেছে শিবসেনা। ফলে তাদের আর এখনই কাছে পাওয়া যাবে না বলেও বিজেপি এখন একপ্রকার নিশ্চিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.