টিকা তৈরি দেখতে অমদাবাদে নরেন্দ্র মোদী, যাবেন আরও দুই শহরে

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ভারতে কোভিডের (Covid 19) টিকা কী ভাবে বানানো হচ্ছে, তা খতিয়ে দেখতে দেশের তিন শহরের সফরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শনিবার সকালেই অমদাবাদের পৌঁছোন তিনি

টিকা তৈরিতে প্রয়োজনীয় সব নিয়মকানুন, সতর্কতা মেনে চলা হচ্ছে কি না তা খতিয়ে দেখতে শনিবার প্রথমে অমদাবাদের জাইডাস ক্যাডিলার গবেষণাগারে যাচ্ছেন মোদী। এখান থেকে হায়দরাবাদের জিনোম ভ্যালিতে ‘ভারত বায়োটেক’-এর গবেষণাগারে যাবেন মোদী। তার পর সেখান থেকে তিনি যাবেন পুণের ‘সেরাম ইনস্টিটিউট’-এ।

আইসিএমআরের সহায়তায় সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে কোভিড-টিকা ‘কোভ্যাক্সিন’ বানাচ্ছে হায়দরাবাদের ভারত বায়োটেক। জাইডাস ক্যাডিলাও কোভিড-টিকা তৈরি করছে। অন্য দিকে, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভাবিত যে টিকা অ্যাস্ট্রাজেনেকা বানাচ্ছে, তা ভারতে বানানোর অনুমতি পেয়েছে পুণের সেরাম ইনস্টিটিউট।

হায়দরাবাদের পুলিশ কমিশনার ভি সি সজ্জনার জানিয়েছেন, শনিবার বিকেল ৩:৪০ নাগাদ হায়দরাবাদে পৌঁছোনোর কথা প্রধানমন্ত্রীর। বিমানবন্দর থেকে কনভয় নিয়ে তিনি সোজা চলে যাবেন জিনোম ভ্যালির ভারত বায়োটেক-এর টিকা তৈরির গবেষণাগারে। সেখানকার টিকা তৈরির কারখানাও ঘুরে দেখবেন তিনি। হায়দরাবাদে থাকবেন প্রায় ঘণ্টা দুয়েক।

তার পর প্রধানমন্ত্রী সন্ধ্যা পৌনে ৬টা নাগাদ হায়দরাবাদ থেকে রওনা হবেন পুণে। সেখানেও বিমানবন্দর থেকে তিনি সোজা চলে যাবেন সেরাম ইনস্টিটিউটে। প্রধানমন্ত্রী আসবেন বলে পিম্পড়ি-চিঞ্চাওয়াড় এলাকায় নিরাপত্তাব্যবস্থা ঢেলে সাজা হচ্ছে। পুণের পাশের এই শহরেই অবস্থিত সেরাম।

প্রয়োজনীয় সরকারি অনুমোদন মিললে ভারত বায়োটেকের টিকা আগামী বছর এপ্রিল থেকে জুন মাসের মধ্যেই ভারতের বাজারে এসে যেতে পারে বলে সংস্থার তরফে ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে।

ও দিকে সেরাম-ও জানিয়েছে, আগামী এপ্রিলেই আমজনতাকে দেওয়ার জন্য অক্সফোর্ডের টিকা ভারতের বাজারে আনা সম্ভব হবে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে বাংলাদেশ, বললেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন