নয়াদিল্লি: এর আগেও বার দুয়েক বলেছেন, কিন্তু লাভ কিছুই হয়নি। দেশজুড়ে গো-রক্ষকদের তাণ্ডব কমার কোনো লক্ষণ নেই। গো রক্ষার নামে খুন, নিগ্রহ চালিয়েই যাচ্ছে হিন্দুত্ববাদীরা। অতএব প্রধানমন্ত্রী ফের মুখ খুললেন।

আরও পড়ুন: ‘গরু মারলে ১৪ বছর কিন্তু মানুষ মারলে ২ বছর কারাদণ্ড’, মন্তব্য বিচারকের

সংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশন শুরু হচ্ছে সোমবার। তার আগে এদিন সর্বদল বৈঠকের ডাক দিয়েছিল সরকার। সেই বৈঠকে উপস্থিত হয়ে মোদী বলেন, “যারা গো-রক্ষার নামে আইন অমান্য করছে, আমি সব রাজ্যকে তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে বলেছি। গো-রক্ষাকে রাজনৈতিক বা সাম্প্রদায়িক রঙে রাঙানো উচিত নয়। এতে দেশের কোনো লাভ হবে না। অনেকেই মনে করেন গরু মায়ের মতো, কিন্তু সে জন্য কোনোমতেই আইন হাতে তোলা উচিত নয়”।

এদিনের সর্বদল বৈঠক বয়কট করে তৃণমূল কংগ্রেস। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে বৈঠকে যোগ দেয়নি নীতীশ কুমারের সংযুক্ত জনতা দলও। তবে তাঁদের তরফে বলা হয়েছে, এটা বয়কট নয়। সাংসদ শরদ যাদব ব্যস্ত থাকার জন্যই তাঁরা বৈঠকে প্রতিনিধি পাঠাতে পারেননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here