জ্যোতি বসুকে ছুঁয়ে ফেললেন নবীন পট্টনায়ক

0

ওয়েবডেস্ক: জ্যোতি বসুকে ধরে ফেললেন নবীন পট্টনায়ক। তবে শুধু জ্যোতিবাবুই নন, নবীন ছুঁলেন সিকিমের সদ্যপ্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী পবন চামলিংকেও।

ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে পঞ্চম বারের জন্য শপথ নিলেন নবীন। বুধবার সকালে ভুবনেশ্বরে প্রকাশ্য একটি অনুষ্ঠানে তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করান রাজ্যপাল গণেশি লাল। নবীন ছাড়াও ১১ জন পূর্ণ মন্ত্রী এবং ৯ জন প্রতিমন্ত্রীকে শপথবাক্য পাঠ করান রাজ্যপাল।

ওড়িশায় এ বার প্রতিষ্ঠান-বিরোধিতার হাওয়া ছিল বলে জানিয়েছিলেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। অনেকের মত ছিল, এ বার সম্ভবত ত্রিশঙ্কু হতে চলেছে রাজ্য। কিন্তু সব পূর্বাভাসকে উড়িয়ে আবার আধিপত্য বজায় রেখে ক্ষমতায় ফেরে নবীনের বিজেডি। ১৪৭ আসনের বিধানসভায় ১১২টি আসন জেতে তারা, যা পাঁচ বছর আগের ফলাফলের থেকে মাত্র পাঁচটি আসন কম।

আরও পড়ুন মুখ্যমন্ত্রীকে বার্তা দিতে মোদীর শপথে ‘বিশেষ আমন্ত্রিতদের’ তালিকায় বড়ো চমক!

উল্লেখ্য, ২০০০ সালে প্রথম বার মুখ্যমন্ত্রী হন নবীন। তার পর ২০০৪, ২০০৯, ২০১৪-এর নির্বাচন পেরিয়ে ফের ২০১৯-এও নিজের আধিপত্য বজায় রাখেন তিনি।

উল্লেখ্য, এ বার সিকিম বিধানসভা নির্বাচনে আকস্মিক ভাবে হেরে গিয়েছে পবন চামলিংয়ের দল সিকিম গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট। দলটি জিতলে ষষ্ঠ বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হতেন চামলিং। ফলে জ্যোতিবাবুকে ছুঁলেও রেকর্ড অধরাই থাকত নবীন পট্টনায়কের।

নবীনের এখন লক্ষ্য, দেশের সব থেকে দীর্ঘসময়ের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নিজের জায়গা পাকা করা। তবে তার আগে তাঁর সামনে কঠিন কাজ। ঘূর্ণিঝড় ফণীতে বিপর্যস্ত পুরী, ভুবনেশ্বর এখনও সে ভাবে স্বাভাবিক হয়নি। ওড়িশাকে দ্রুত স্বাভাবিকতায় ফিরিয়ে আনাই তাঁর প্রাথমিক লক্ষ্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here