বিক্ষোভের আশঙ্কায় হিংসা জর্জরিত রাজ্যের এক-তৃতীয়াংশ এলাকায় বন্ধ ইন্টারনেট

ওয়েবডেস্ক: গত শুক্রবার দুপুরের পর নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় ব্যাপক হিংসা ছড়িয়েছিল উত্তরপ্রদেশে। সেই ধরনের ঘটনা যাতে আর না হয়, সে জন্য আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে রাজ্যের এক-তৃতীয়াংশ এলাকাতেই বন্ধ করা হল ইন্টারনেট।

প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, রাজ্যের ৭৫-এর মধ্যে ২১ জেলাতেই বন্ধ করা হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা।

বিজনৌর, বুলন্দসহর, মেরঠ, মুজফ্‌ফনগর, আগরা, ফিরোজাবাদ, সম্ভল, আলিগড়, গাজিয়াবাদ, রামপুর, সীতাপুর, কানপুর-সহ আরও একাধিক এলাকায় বন্ধ রয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা।

গত সপ্তাহে লখনউতেও হিংসা ছড়িয়ে পড়েছিল। দুই বিক্ষোভকারীর মৃত্যুও হয়েছিল। তবে লখনউতে ইন্টারনেট বন্ধ করা হয়নি।

আরও পড়ুন আবার শীর্ষ আদালতে উঠতে পারে অযোধ্যা মামলা

তবে সমস্যা হয়েছে আগরা নিয়ে। তাজমহলের শহরে এ দিন সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা নেট পরিষেবা বন্ধ থাকায় সাধারণ মানুষের পাশাপাশি পর্যটকরাও বিপাকে পড়েছেন।

তবে বর্তমানে রাজ্যের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে দাবি করেছেন উত্তরপ্রদেশের ডিজিপি ওপি সিংহ। তিনি বলেন, “পরিস্থিতি সব জায়গাতেই স্বাভাবিক। তবুও আমরা কোনো ঝুঁকি নিচ্ছি না। ২১টা জেলায় ইন্টারনেট বন্ধ রয়েছে। পরিস্থিতি অনুযায়ী আমরা ইন্টারনেট পরিষেবা ফিরিয়ে দেব।”

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার দুপুরের পর রাজ্যে যে হিংসা ছড়িয়েছিল, তা আরও দু’দিন চলেছে। এই বিক্ষোভের জেরে ১৯ জন বিক্ষোভকারী নিহত হন। অভিযোগ উঠেছিল, পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয়েছে বিক্ষোভকারীদের, যদিও সেই অভিযোগ বার বার অস্বীকার করেছে পুলিশ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.