Homeখবরদেশসুভাষের জাতীয়তাবাদী রাজনীতির গুরু দেশবন্ধু

সুভাষের জাতীয়তাবাদী রাজনীতির গুরু দেশবন্ধু

প্রকাশিত

সালটা ১৯২৩-২৪। তখনও ওতোপ্রতভাবে রাজনীতিতে প্রবেশ করেননি স্বাধীনতার সংগ্রামের অন্যতম কান্ডারি নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু। তখন একজন সাংবাদিক রূপেই সংবাদপত্রে লেখালেখি করছিলেন। যদিও সেই সময়কালেই বঙ্গীয় প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির প্রচারের দায়িত্বে নিযুক্ত হন তিনি। যার হাত ধরে তিনি রাজনীতিতে প্রবেশ করলেন তিনি বাংলার মহান জাতীয়তাবাদের প্রবক্তা দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাস।

জাতীয়তাবাদের প্রবক্তা দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাস যখন কলকাতা পৌর সংস্থার মেয়র হন তখন তার অধীনে কর্মরত ছিলেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু। সালটা ১৯২৪। চিত্তরঞ্জন দাসের এমন কিছু গুন ছিল যা আকৃষ্ট করেছিল নেতাজি সুভাষচন্দ্র বোসের মত আদর্শবাদী তরুণকে। অবশেষে তার হাত ধরেই তিনি প্রবেশ করলেন জাতীয়তাবাদী রাজনীতিতে।

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর রাজনৈতিক গুরু চিত্তরঞ্জন দাস সেই সময় বাংলায় আগ্রাসী জাতীয়তাবাদের মুখপাত্র। সেই সময় সুভাষচন্দ্র বসু সর্বভারতীয় যুব কংগ্রেসের সভাপতি এবং বঙ্গীয় প্রাদেশিক কংগ্রেসের সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হন সেই সঙ্গে সঙ্গে চিত্তরঞ্জন দাশের প্রতিষ্ঠিত পত্রিকার সম্পাদকের ভূমিকা পালন করেন।

১৯২৪ সালে চিত্তরঞ্জন দাস যখন কলকাতার মেয়র, ঠিক তখন নেতাজি কলকাতা পৌর সংস্থার প্রধান নির্বাহী কার্যকর্তা। ঠিক তার এক বছর পর সুভাষচন্দ্র বসুকে গ্রেফতার করে পাঠানো হয় মান্দালয়ের কারাগারে।১৯২৭ সালে সেখান থেকে ছাড়া পান তিনি। এরপর শুরু হয় আসল যুদ্ধ। দেশকে স্বাধীন করার লক্ষে জেল থেকে মুক্তি পাবার পর জাতীয় কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক হয়ে জহরলাল নেহেরুর সঙ্গে কাজ শুরু করেন। ১৯২৮ সালে কলকাতায় জাতীয় কংগ্রেসের বার্ষিক সভার আয়োজন করেন তিনি। সেই সময় তিনি কংগ্রেসের স্বেচ্ছাসেবক বাহিনীর জেনারেল অফিসার কমান্ডিং। যদিও তার কিছুদিন পরেই আইন অমান্য আন্দোলনের জন্য জেলে পাঠানো হয় নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুকে। ১৯৩০ সালে নির্বাচিত হন কলকাতার মেয়র হিসেবে।

সাম্প্রতিকতম

উপনির্বাচনে ভরাডুবি বিজেপির, ৪ আসনেই জয়ী তৃণমূল

আরও কমল বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা। রাজ্যের চার বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে শূন্য হাতেই ফিরতে হল...

সেপটিক ট্যাঙ্কে চোলাই মদের সরঞ্জাম লুকিয়ে রাখার অভিযোগ, তুলতে গিয়ে নাবালক-সহ মৃত ৩

শনিবার সকালে পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরা ব্লকের চকরাধাবল্লভ গ্রামে সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে তিন জনের মৃতদেহ...

ব্যক্তিগত ঋণের সুদের হার: এই ৫টি ব্যাঙ্ক সর্বনিম্ন হারে ঋণ দিচ্ছে

পার্সোনাল লোন বা ব্যক্তিগত ঋণে সুদের হার পরিবর্তনশীল। সিবিল স্কোর, আয়, ঋণের পরিমাণ, ঋণের...

মাত্র সাড়ে ৪ হাজার টাকা ঋণ আদায়ে আটকে রেখে মারধর, অপমানে আত্মঘাতী দলিত যুবক

ধারের টাকা শোধ করতে না পারায় এক দলিত যুবককে আটকে রেখে মারধর। অপমানে আত্মঘাতী...

আরও পড়ুন

ব্যক্তিগত ঋণের সুদের হার: এই ৫টি ব্যাঙ্ক সর্বনিম্ন হারে ঋণ দিচ্ছে

পার্সোনাল লোন বা ব্যক্তিগত ঋণে সুদের হার পরিবর্তনশীল। সিবিল স্কোর, আয়, ঋণের পরিমাণ, ঋণের...

মাত্র সাড়ে ৪ হাজার টাকা ঋণ আদায়ে আটকে রেখে মারধর, অপমানে আত্মঘাতী দলিত যুবক

ধারের টাকা শোধ করতে না পারায় এক দলিত যুবককে আটকে রেখে মারধর। অপমানে আত্মঘাতী...

বিশ্বের আত্মহত্যার রাজধানী হয়ে উঠেছে ভারত, এনসিআরবির রিপোর্টে চাঞ্চল্যকর তথ্য

মৌ বসু সম্প্রতি মুম্বইয়ে এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটে যা গোটা দেশের মানুষের মনে নাড়া দিয়ে...
মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখার ৮ টি অভ্যাস হাড়ের ঘনত্ব বাড়াতে ৯টি যোগব্যায়াম