মোদীর জন্মদিনে রেকর্ড সংখ্যক টিকাকরণ করেছিল মধ্যপ্রদেশ, গোটা ঘটনায় রহস্যজনক মোড়

0

ভূপাল: গত ১৭ সেপ্টেম্বর দেশ জুড়ে রেকর্ড সংখ্যক টিকাকরণ হয়েছিল। গোটা দেশে প্রায় আড়াই কোটি টিকাকরণের দিন বিজেপিশাসিত এক একটি রাজ্যেই টিকাকরণ হয়েছিল ২৫ থেকে ৩০ লক্ষের মধ্যে। এর মধ্যে মধ্যপ্রদেশও ছিল। ওই দিন রাজ্যে ২৭ লক্ষ্য টিকাকরণ করা হয়েছিল।

কিন্তু রেকর্ড সংখ্যক এই টিকাকরণের পেছনে নতুন রহস্য তৈরি হয়েছে। প্রকৃত সংখ্যাটা আদৌ কতটা সঠিক সেটা নিয়ে সন্দেহ তৈরি হয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। টিকা নেননি এমন একাধিক মানুষের কাছে টিকা নেওয়ার এসএমএস পৌঁছে গিয়েছে।

রাজ্যের এক বাসিন্দা আশুতোষ শর্মার ফোনে একটি এসএমএস এসেছে। সেখানে লেখা রয়েছে, “মাননীয়া বিদ্যা শর্মা। আপনি ১৭ সেপ্টেম্বর সফল ভাবে কোভিশিল্ড টিকার দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন।” বিদ্যাদেবী হলেন আশুতোষের মা।

এমনিতে এই এসএমএসে রহস্যজনক কিছুই নেই। মায়ের টিকার খবর ছেলের ফোনে আসতেই পারে। কিন্তু আশুতোষ জানান, বিদ্যাদেবী কোভিডে আক্রান্ত হয়েই চার মাস আগে মারা গিয়েছেন। এই এসএমএস নিয়ে স্তম্ভিত আশুতোষ। টিকাকরণের এই শংসাপত্রটি তিনি ডাউনলোড করে রাখেন।

এনডিটিভিকে আশুতোষ বলেন, “আমার এক হাতে মায়ের মৃত্যুর শংসাপত্র, অন্য হাতে টিকাকরণের শংসাপত্র। আমি বুঝতে পারছি যে টিকাকরণের সংখ্যা বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য সরকারি আধিকারিকদের ওপরে কী পরিমাণ চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে।”

একই দিনে ২৬ বছরের তরুণী পিঙ্কি বর্মার ফোনেই টিকার দ্বিতীয় ডোজ প্রদানের এসএমএস চলে আসে। পিঙ্কি বলেন, “৮ জুন আমি টিকার প্রথম ডোজ নিই। আমার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার কথা ছিল ৭ সেপ্টেম্বর। কিন্তু শরীর খারাপ থাকায় আমার এখনও পর্যন্ত দ্বিতীয় ডোজ নেওয়াই হয়নি।”

ক্ষুব্ধ পিঙ্কি বলেন, “টিকার সংখ্যা বাড়ানোর জন্য আধিকারিকরা ইচ্ছে করে এই সব করছে।”

শুধু আশুতোষ বা পিঙ্কিই নয়, আরও অনেকের ক্ষেত্রেই ব্যাপারটা ঘটেছে। ৫৪ বছর বয়সি লীলা সুতার বলেন, “২৫ মার্চে প্রথম ডোজের পর আমি কোভিডে আক্রান্ত হই। সে কারণে এখনও দ্বিতীয় ডোজ আমার নেওয়া হয়নি। অথচ ফোনে এসএমএস এসে গিয়েছে যে আমার দ্বিতীয় ডোজ হয়ে গিয়েছে। এখন যদি এর ফলে আমায় সমস্যায় পড়তে হয় তো এর দায় কে নেবে!”

এই ব্যাপারে সরকারি প্রতিনিধিদের জিজ্ঞেস করা হলে উত্তরটা কিন্তু বড্ড চেনা চেনা ছিল। মধ্যপ্রদেশের চিকিৎসাবিদ্যা মন্ত্রী বিশ্বাস সরং বলেন, “প্রযুক্তিগত ত্রুটির জন্য একটা-দুটো ক্ষেত্রে এমনটা হতে পারে। এটা আমরা ঠিক করে নেব।”

আরও পড়তে পারেন

ট্রেজারিতে মজুত রাখা গন্ডার-খড়্গ পুড়িয়ে বিশ্ব গন্ডার দিবস পালিত অসমে

চিনা বিনিয়োগকারীদের আটকাতে এলআইসি-র শেয়ারে লক্ষ্মণরেখা টানতে পারে ভারত

কোভিডে মৃত প্রত্যেকের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ দেবে রাজ্য, সুপ্রিম কোর্টে জানাল কেন্দ্র

দৈনিক সংক্রমণ বাড়লেও পুজোর মুখে মোটের ওপর স্থিতাবস্থা পশ্চিমবঙ্গের করোনাগ্রাফে

ধন্ধুমার কাণ্ড! ঘন ঘন লোডশেডিং, অস্বাভাবিক বিদ্যুৎ বিলের প্রতিবাদে জয়নগরে রাস্তা অবরোধ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন