প্রকাশিত হল ভারতের সংস্কৃত মানচিত্র, পাকিস্তান হল পাকিস্তানম, নাগাল্যান্ড হল নাগাল্যান্ডম…

0

নয়াদিল্লি: জাতীয় বিজ্ঞান দিবস উদযাপনের অংশ হিসাবে ১৮ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো, সংস্কৃত ভাষায় ভারতের একটি আপডেট রাজনৈতিক মানচিত্র প্রকাশ করা হল।

সর্বশেষ এ জাতীয় মানচিত্র প্রকাশিত হয়েছিল ২০০২ সালে। সে সময় প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর এনডিএ সরকার ক্ষমতায় ছিল। তবে তার পর থেকে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক এবং জাতীয় সীমানা বিন্যাসের ফলে নতুন সংস্কৃত মানচিত্রের চাহিদা দেখা গিয়েছিল। সেই চাহিদা পূরণ করতেই নতুন এই মানচিত্র প্রকাশ করা হল।

এ দিন বিজ্ঞান ভবনে সংস্কৃত ও হিন্দি মানচিত্রের উন্মোচন করেন কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী হর্ষ বর্ধন।

ওই মানচিত্রে শহর ও রাজ্যের বেশিরভাগ নাম হিন্দির মতোই একই। তবে অতিরিক্ত সংস্কৃত প্রত্যয়-সহ ‘অম’ এবং ‘অহ’ যুক্ত করা হয়েছে বেশ কিছুতেই। উদাহরণস্বরূপ, রাজস্থানকে ‘রাজস্থানম’ হিসাবে দেখানো হয়েছে, পঞ্জাবকে ‘পঞ্জাবাহ’ বলা হয়েছে, কেরলকে ‘কেরলম’ বলা হয়েছে, আবার কর্নাটককে ‘কর্নাটকাহ’ বলা হয়েছে।

এমনকী ইংরেজী প্রত্যয়যুক্ত নাগাল্যান্ডের সঙ্গে একটি ‘অম’ যুক্ত করে সংস্কৃত করা হয়েছে – মানচিত্রে এটিকে ‘নাগাল্যান্ডম’ বলে।

লাদাখ ও জম্মু ও কাশ্মীরের নতুন কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে ‘লাড্ডাখাহ’ এবং ‘জম্মু কাশ্মীরাহ’ হিসাবে দেওয়া হয়েছে। একই ভাবে লেখা হয়েছে ‘আফগানিস্তানম’, ‘পাকিস্তানম’, ‘ইসলামাবাদহ’ এবং ‘পেশওয়ারম’। চিনকে ‘চিন-গণরাজ্যম’ হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.