amarnath

ওয়েবডেস্ক: যাত্রাপথে নেই শৌচালয়। তীর্থযাত্রীদের জন্য পরিকাঠামোগত পরিষেবাও ভালো নয়। এই সব নিয়েই অমরনাথ শ্রাইন বোর্ডকে তীব্র ভর্ৎসনা করল পরিবেশ আদালত।

শৌচালয়ের ব্যবস্থা না করেও কী ভাবে দোকান খোলার জন্য ব্যবসায়ীদের অনুমতি দেওয়া হয়েছে, এই নিয়েই শ্রাইন বোর্ডকে ভর্ৎসনা করে আদালত। পরিবেশ আদালতের চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র কুমারের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ বুধবার বলে, “অমরনাথের রাস্তায় দোকান খোলার অনুমতি আপনারা দিয়েছেন কিন্তু কোনো শৌচালয় বানাননি। একবারও ভেবে দেখেছেন মহিলাদের কাছে এটা কতটা অপমানজনক। তীর্থযাত্রীদের সঠিক পরিষেবাও আপনারা দেন না। কেন তীর্থযাত্রীদের থেকে ব্যবসায়ীদের বেশি প্রাধান্য দিয়েছেন আপনারা? এটা ঠিক নয়। মন্দিরের পবিত্রতা রক্ষা করা আপনাদের দায়িত্ব।”

এই নির্দেশের পর শ্রাইন বোর্ড সঠিক পরিষেবা দিচ্ছে কি না সেটা দেখার জন্য পরিবেশ মন্ত্রকের সচিবের নেতৃত্বাধীন একটি গ্রিন বেঞ্চ তৈরি করেছে আদালত। অমরনাথ গুহার আশেপাশের অঞ্চল পরিষ্কার রাখা, যাত্রাপথকে ‘সাইলেন্ট জোন’ ঘোষণা করার ব্যাপারে একটি রিপোর্ট দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। সেই সঙ্গে ওই অঞ্চলে পরিবেশবান্ধব শৌচালয় তৈরি করা যায় কি না সে ব্যাপারটিও দেখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আরও পড়ুন দিনে পঞ্চাশ হাজারের বেশি পুণ্যার্থী বৈষ্ণোদেবী যেতে পারবেন না, নির্দেশ পরিবেশ আদালতের

পরিবেশকর্মী গৌরী মৌলেখির আবেদনের ভিত্তিতে এই নির্দেশ দিয়েছে আদালত। উল্লেখ্য, সোমবারই বৈষ্ণোদেবীর ক্ষেত্রেও একাধিক নির্দেশ দিয়েছিল পরিবেশ আদালত।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here