হায়দরাবাদ এনকাউন্টারে তদন্তের নির্দেশ দিল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন

0

ওয়েবডেস্ক: জাতীয় মানবাধিকার কমিশন (এনএইচআরসি) শুক্রবার হায়দরাবাদে মহিলা পশু চিকিৎসককে ধর্ষণ ও খুনের অভিযোগে চার অভিযুক্তের মৃত্যুর ঘটনায় গুরুত্ব দিয়ে পুলিশি এনকাউন্টারে তদন্তের নির্দেশ দিল।

শীর্ষস্থানীয় মানবাধিকার সংস্থা জানিয়েছে, শুক্রবার ভোরবেলার এই এনকাউন্টার উদ্বেগের বিষয়। গণধর্ষণ ও খুনের ঘটনার ১০ দিনের মাথায় এই এনকাউন্টার ঘিরে উত্তাল গোটা দেশ। সামশাবাদের ডিসিপি প্রকাশ রেড্ডির দাবি, আগ্নেয়াস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে পুলিশের উপর গুলি চালানোর পরই পুলিশ আত্মরক্ষায় অভিযুক্তদের উদ্দেশে গুলি চালায়। তাতেই মৃত্যু হয় চার জনের। এই ঘটনার পর আবেগে ভাসছে গোটা দেশ। তবুও বিভিন্ন মহল থেকে ঘটনার সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠায়, তদন্তের নির্দেশ দিল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন।

পুরো ঘটনায় পুলিশের প্রশংসার পাশাপাশি ভিন্ন মতামতও উঠে এসেছে। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মানেকা গান্ধী এনকাউন্টারের ঘটনাটিকে “ভয়াবহ” বলে বর্ণনা করেছেন। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী করুণা নুন্ডি একটি টুইটার পোস্টে অবাক হয়ে জিজ্ঞাসা করেছেন, “এত সময় থাতে ভোর সাড়ে তিনটা নাগাদ পুলিশ কী তদন্ত করছিল?”

[ আরও পড়ুন: সর্বোচ্চ মহলের নির্দেশেই হায়দরাবাদে ভুয়ো সংঘর্ষে খুন করা হয়েছে ৪ অভিযুক্তকে, দাবি মানবাধিকার কর্মীর ]

প্রসঙ্গত, মামলাটি এখনও তদন্তাধীন ছিল। চার্জশিট দাখিল করা হয়নি। বিচার শুরু হয়নি। আদালত এখনও শুনানি শুরু করতে পারেনি। এখনও প্রমাণিত হয়নি যে গুলিবিদ্ধ হয়ে মরে যাওয়া অভিযুক্তরা গণধর্ষণ ও খুনের আসল অপরাধী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.