nirav-modi interpol

ওয়েবডেস্ক : মঙ্গলবার কর্মীদের ই-মেল পাঠিয়ে চাকরি খুঁজতে বললেন ১১,৪০০ কোটি টাকা প্রতারণার দায়ে অভিযুক্ত নীরব মোদী। কারণ, তিনি আর মাইনে দিতে পারবেন না। তদন্তকারী সংস্থা, আয়কর বিভাগ তার সমস্ত কোম্পানির স্টক, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করছে। তাই তিনি মাইনে দিতে অক্ষম।

হিন্দুস্থান টাইমস এই খবর দিয়ে জানিয়েছে, নীবর মোদীর পাঠানো ই-মেল তারা দেখেছে। মোদীর আইনি পরামর্শদাতা টিমের সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তি এই ই-মেলের সত্যতা স্বীকারও করেছেন।

ইতিমধ্যেই ইডি তাঁর দুটি স্টোর এবং কোম্পানি থেকে ৫হাজার ৭০০কোটি টাকা মূল্যের দামি রত্ন, পাথর এবং সোনা বাজেয়াপ্ত করেছে। সেদিকে আঙুল তুলেই মোদী কর্মীদের ই-মেলে লিখেছেন, ‘‘ আমার কোম্পানির স্টক এবং ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করে দেওয়ায়, বকেয়া টাকা দিতে অপারগ। তাই অপনাদের পক্ষে অন্য চাকরি খুঁজে নেওয়াই সঠিক কাজ হবে।’’

পয়লা জানুয়ারি থেকে বেপাত্তা নীরব মোদী কর্মীদের উদ্দেশ্যে লেখা ই-মেল শুরু করেছেন এই বলে যে, পিএনবি-র আনা তার বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগের ফলে কোম্পানি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ই-মেলে তিনি রাজনীতিবিদ এবং মিডিয়ার দিকে ইঙ্গিত দিয়ে বলেছেন, ‘‘ আমি অবাক হয়ে যাচ্ছি যে দ্রুত গতিতে সব কিছু চলছে দেখে।’’

ই-মেলে মোদী তার হিসাবরক্ষক হেমন্ত ভাটকে সিবিআই-এর গ্রেফতারের প্রসঙ্গও এনেছেন। তিনি লেখেন, ভাটের ৬৫ বছর বয়স এবং তাঁর হার্টের সমস্যা আছে। মঙ্গলবারও কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা মোদী এবং চোকসির সংস্থার পাঁচজন আধিকারিককে গ্রেফতার করেছে।

ই-মেলের শেষে তিনি লিখেছেন, ‘‘আমি আশা করি সুদিন এলে আমরা আবার একসঙ্গে হতে পারব। আমি স্পষ্ট করে জানিয়ে দিতে চাই, যে মুহূর্তে আমি আমার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এবং স্টকে আবার হাত দিতে পারব, আমি আপনাদের বকেয়া টাকা দিয়ে দেব।’’

নিখোঁজ থাকা অবস্থা দু’বার বার্তা পাঠালেন নীরব মোদী একবার পিএনবিকে এবার তার নিজের সংস্থার কর্মীদের।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here