বিজেপি এবং আপের বিরুদ্ধে জোরালে অভিযোগ নির্ভয়ার মায়ের

0
nirbhaya case
ছবি: ডিএনএ ইন্ডিয়া থেকে

ওয়েবডেস্ক: নির্ভয়া গণধর্ষণের চার সাজাপ্রাপ্তের মধ্যে একজনের প্রাণভিক্ষার আবেদন শুক্রবার ফিরিয়ে দেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এর পরই তিহাড় জেল কর্তৃপক্ষ নতুন মৃত্যু পরোয়ানা জারির আবেদন নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়। স্বাভাবিক ভাবেই দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টের জারি করা পুরনো পরোয়ানা নিয়ে ফের জটিলতা সৃষ্টি হওয়ায় বিজেপি এবং আপের রাজনৈতিক কৌশলের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন নির্যাতিতার মা।

নির্ভয়ার মা আশাদেবী এ দিন বলেন, বিজেপি এবং দিল্লির শাসক দল আপ অপরাধীদের ফাঁসি নিয়ে রাজনৈতিক খেলায় নেমেছে। একই সঙ্গে তিনি অভিযোগ করেন, আগামী ২২ জানুয়ারি দোষীদের ফাঁসি হওয়ার কথা থাকলেও ওই দুই দল উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে বিলম্ব করছে।

সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের কাছে আশাদেবী বলেন, “আমরা সাত বছর ধরে অপেক্ষা করে রয়েছি, কিন্তু এখনও বিচার পাইনি। সরকার আমাদের যন্ত্রণা বুঝতে পারছে না। একটা মেয়ের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে দুই রাজনৈতিক দলই নিজেদের মতো করে খেলে চলেছে। আমি মনে করি, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবেই ফাঁসি কার্যকর হচ্ছে না”।

একই সঙ্গে তিনি দাবি করেন, “এর আগে পর্যন্ত রাজনীতি নিয়ে আমরা কিছু বলিনি। কিন্তু এখন বলতে বাধ্য হচ্ছি, যে লোকেরা ২০১২ সালে আমার মেয়ের মৃত্যুতে সমবেদনা জানিয়েছিলেন, তাঁরা আসলে নিজেদের স্বার্থসিদ্ধি করার জন্যই পথে নেমেছিলেন”।

আরও পড়ুন: সাজাপ্রাপ্তের আর্জির ব্যাপারে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন রাষ্ট্রপতি

এ দিনই বিজেপি অভিযোগ করে নির্ভয়াকাণ্ডের দোষীদের ফাঁসি নিয়ে বিলম্ব করছে আপ সরকার। এর পরই দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মনীষ সিসোদিয়া পাল্টা অভিযোগ করেন, “দিল্লি পুলিশ এবং আইন-শৃঙ্খলা আমাদের হাতে দিলে, দু’দিনের মধ্যেই ফাঁসি কার্যকর করা দিতাম”।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.