দেশের প্রথম পূর্ণ সময়ের মহিলা অর্থমন্ত্রী, নির্মলা সীতারমনের লক্ষ্য এবং প্রতিবন্ধকতা

0

তিনিই দেশের প্রথম পূর্ণ সময়ের মহিলা অর্থমন্ত্রী। আয় বুঝে ব্যয়ের সঙ্গেই ঘাটতি পূরণে আয়ের রাস্তা প্রশস্ত করে দেশের ভাঁড়ার সামলানোর গুরুদায়িত্ব পালন করে চলেছেন নির্মলা সীতারমন (Nirmala Sitharaman)।

শৈশব এবং পড়াশোনা

তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ে সাবিত্রী ও নারায়ণন সীতারামনের ঘরে জন্ম নির্মলার। বাবা নারায়ণন তিরুচিরাপল্লী জেলার মুসরির বাসিন্দা এবং মায়ের পরিবার ছিলেন তামিলনাড়ুর তিরুভেনকুড়ি, তাঞ্জাবুর ও সালেম জেলার স্থানীয় বাসিন্দা। বাবা ভারতীয় রেলওয়ের কর্মচারী হওয়ায় রাজ্যের বিভিন্ন অংশে শৈশব কেটেছে নির্মলার।

মাদ্রাজ ও তিরুচিরাপল্লিতেই পড়াশোনা। ১৯৮০ সালে তিরুচিরাপল্লির সীতালক্ষ্মি রামাস্বামী কলেজ থেকে অর্থনীতিতে আর্টস ডিগ্রি অর্জন করেন এবং ১৯৮৪ সালে অর্থনীতিতে মাস্টার্স ডিগ্রি ও এমএসফিল-এর ডিগ্রি করেন দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। ইন্দো-ইউরোপের ব্যবসায়ের উপর মনোযোগ দিয়ে অর্থনীতিতে পিএইচডি-এর জন্য ভর্তি হয়। কিন্তু তাঁর স্বামী পারকলা প্রভাকর লন্ডনের স্কুল অব ইকোনোমিক্সে বৃত্তি লাভের পরে তিনি স্বামীর সঙ্গে লন্ডনে চলে যান, ফলে তিনি ডিগ্রি অর্জন অধরা রয়ে যায়।

কলেজ রাজনীতি থেকে সংসদে

জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময়েই রাজনীতিতে হাতেখড়ি। সে সময় তিনি ফ্রি থিঙ্কার নামে একটি ছাত্র সংগঠনে যুক্ত ছিলেন। ২০০৬ সালে যোগ দেন বিজেপি-তে। ২০১০-১৪ সাল পর্যন্ত দলের মুখপাত্রে দায়িত্বও সামলান।

২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রীসভায় অন্তর্ভুক্তি। অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে রাজ্যসভার সদস্য হিসেবে সংসদে প্রবেশ। ২০১৬ সালের রাজ্যসভা নির্বাচনে বিজেপির ১২ জন প্রার্থীর মধ্যে অন্যতম ছিলেন নির্মলা। কর্নাটক থেকে জয়ী হয়ে রাজ্যসভার সাংসদ নির্বাচিত হন।

ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৭ সালের ৩ সেপ্টেম্বর প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিসাবে নিযুক্ত হন নির্মলা। প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর পরে দ্বিতীয় মহিলা, যিনি এই পদে অধিষ্ঠিত হন। তবে তিনিই প্রথম পূর্ণ সময়ের মহিলা প্রতিরক্ষামন্ত্রী। তাঁর সময়েই, ২০১৯ সালে বালাকোট এয়ার স্ট্রাইক চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা। এর পর ২০১৯-এ অর্থমন্ত্রকের দায়িত্বে। এখনও পর্যন্ত ৪টি বার্ষিক বাজেট পেশ করেছেন সংসদে।

নির্মলার লক্ষ্য এবং সংকট

এক দিকে রাজস্ব একত্রীকরণ নীতি অনুসরণের কঠোর প্রয়োজনীয়তা, অন্য দিকে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে সহায়ক ক্ষেত্রগুলিকে নিজের পায়ে দাঁড় করানোর প্রয়োজনীয়তা। এই দুই বিষয়কে সামনে রেখেই দেশের প্রথম পূর্ণ সময়ের মহিলা অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন নির্মলা সীতারমন (Nirmala Sitharaman)।

২০১৯ সালের ৩১ মে অর্থ ও কর্পোরেট বিষয়ক মন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত হন নির্মলা। সে সময় অর্থমন্ত্রী সামনে বহুবিধ ইস্যু, যেগুলি নিয়ে স্থির সিদ্ধান্ত নেওয়া দরকার ছিল যতটা সম্ভব তাড়াতাড়ি। মন্থরগতিতে এগিয়ে চলা বা কখনো পিছনের দিকে হাঁটতে শুরু করা দেশের দুর্বল অর্থনৈতিক পরিকাঠামোকে নতুন করে চাঙ্গা করে তোলাই যে তাঁর এক অন্যতম লক্ষ্য, সে কথাই তিনি জানিয়েছিলেন সংসদে। কিছুটা কাটিয়ে উঠতেও সক্ষম হন। কিন্তু বছর ঘুরতেই করোনা অতিমারির থাবা। শুধু ভারত নয়, বিশ্বঅর্থনীতিতেও টালামাটাল পরিস্থিতি। যদিও সেই পরিস্থিতিও ধীরে ধীরে কাটিয়ে ওঠার লক্ষণ দেখিয়েছে ভারতীয় অর্থনীতি। অতিমারির ধাক্কা সামলাতে গঠিত কোভিড-১৯ ইকনোমিক রেসপন্স টাস্ক ফোর্সের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান তিনিই।

অন্যান্য প্রাপ্তি

এর আগে জাতীয় মহিলা কমিশনের সদস্য হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন নির্মলা। ২০১৯ জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে বিশিষ্ট প্রাক্তনী পুরস্কার প্রদান করে। ওই বছরেই ফোর্বস ম্যাগাজিন বিশ্বের ১০০ জন ক্ষমতাশালী নারীর তালিকায় তাঁকে ৩৪তম স্থান দেয়।

আরও পড়তে পারেন:

প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর গুরুত্বপূর্ণ কিছু সিদ্ধান্ত, যার রেশ অব্যাহত এখনও

সুষমা স্বরাজ: ভারতের ‘সব চেয়ে ভালোবাসার রাজনীতিবিদ’

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন