nitish

ওয়েবডেস্ক: বিজেপি নেতা অরিজিত শাশ্বতকে জেলে পাঠিয়ে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ রোখার কড়া বার্তা দিয়েছিলেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। এই কঠিন পদক্ষেপ নেওয়ার পর তাঁকে জোট সঙ্গী বিজেপির কাছ থেকে নানা ধরনের তির্যক মন্তব্য শুনতে হয়েছে। কিন্তু মুখ খোলেননি নীতীশ। নীরবতা ভেঙে বৃহস্পতিবার ওই একই প্রসঙ্গে নাম না করে বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন তিনি।

গত বছর বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদবের ছেলে তেজস্বীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার পর তিনি আরজেডির সঙ্গে জোট সরকার ভেঙে দেন। পরিবর্তে বিজেপির হাত ধরেন। এ বার সরাসরি তিনি বিজেপির সাংসদের ছেলেকে জেলে পাঠিয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় যথার্থ পদক্ষেপ নিয়েছেন বলেই মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘দুর্নীতির সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই।’ ভাগলপুর থেকে শুরু হওয়া ওই সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ খুব দ্রুত পার্শ্ববর্তী পাঁচটি জেলায় ছড়িয়ে পড়ছিল। যে কারণে তিনি তা নির্মূল করতেই কার্যকরী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

অরিজিতকে গ্রেফতার করার পর বিহারের বিজেপি রাজ্য নেতৃত্ব ক্রমাগত নীতীশকে উদ্দেশ্য করে তির্যক মন্তব্য ছুড়ে দিয়েছেন। তাঁরা এমনও বলেছেন, শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষা করা নীতীশের কাছে সহজ কাজ নয়। বিজেপি নেতা অরিজিত আত্মসমর্পণ করতে চাননি বলেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যদিও অরিজিতের গ্রেফতারিতে নীতীশের দল যথেষ্ট উৎসাহিত হয়েছে। তারা মনে করে, মুখ্যমন্ত্রী কথা দিয়েছিলেন, কথা রেখেছেন।

একটি সরকারি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে নীতীশ বলেন, “আমি কখনোই আইনের সঙ্গে সংঘাতে গিয়ে দুর্নীতির সঙ্গে আপোস করি না। আমি সব সময়ই মনে করি, সমাজে সমস্ত রকমের মানুষই আছেন। তাদের মধ্যে কেউ কেউ অপকর্ম ও অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছে।’’

তিনি বলেন, “আমরা শান্তি, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি এবং ভ্রাতৃত্ব রক্ষার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং যদি কেউ তাতে বিঘ্ন ঘটাতে আসে, তাহলে তাকে  জেলে যেতে হবে।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here