শৈবাল বিশ্বাস

আধার সংযোগ না থাকায় বন্ধ হয়ে গেল রান্নার গ্য‌াসের সরবরাহ। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার গ্য‌াস সরবরাহকারী সংস্থা এবং গ্য‌াস ও তেল কোম্পানিগুলিকে নির্দেশিকা পাঠিয়ে জানিয়ে দিয়েছে আধার ছাড়া এ বার থেকে কোনো গ্রাহককেই গ্য‌াস দেওয়া যাবে না। এর আগে ভর্তুকি ছাড়া গ্য‌াস আধার ছাড়াই সরবরাহ করা যেত। কিন্তু এই নির্দেশিকার ফলে ভর্তুকিহীন এবং ভর্তুকিযুক্ত — উভয় ক্ষেত্রেই আধার কার্ড থাকাটা বাধ্য‌তামূলক।

যে সব গ্রাহক কোনো কারণে আধার কার্ড জমা দিতে পারেননি বা ভর্তুকি ছাড়াই গ্য‌াস নেওয়ার কারণে আধার জমা দেওয়াটা বাধ্য‌তামূলক বিবেচনা করেননি তাঁরা বিরাট অসুবিধার মুখে পড়ে গেলেন। এঁদের ক্ষেত্রে গ্য‌াস নিতে গেলেই এজেন্সিগুলি স্পষ্ট বলছে হয় আধার কার্ড দিন আর নয়তো নতুন করে কেওয়াইসি জমা দিন। গ্রাহকদের বক্তব্য‌, আগে থেকই যখন কেওয়াইসি দেওয়া আছে তখন আবার নতুন করে কেওয়াইসি জমা নেওয়া কেন? এ প্রশ্নের কোনো সদুত্তর নেই। গ্রাহকরা প্রশ্ন করছেন, আধার ছাড়া ভর্তুকির গ্য‌াস পাওয়া যাবে না এটা সরকার গ্রাহকদের জন্য‌ বিজ্ঞাপিত করেছে।কিন্তু ভর্তুকিহীন গ্য‌াসের জন্য‌ কোনো বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়নি। সে ক্ষেত্রে হঠাৎ করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল কেন?

কেন এই নিয়ম করল পেট্রলিয়াম মন্ত্রক? তেল সংস্থাগুলি গ্য‌াস এজে্ন্সিগুলিকে জানিয়েছে, যাঁরা ভর্তুকি ছাড়াই গ্য‌াস নিচ্ছেন তাঁদের তথ্য‌ যাচাই করতে গিয়ে দেখা যাচ্ছে প্রচুর গরমিল রয়েছে। যে ঠিকানা তাঁরা লিখিয়েছেন সেখানে তাঁরা বসবাস করেন না। অথবা বাস্তবে সেই ঠিকানার আদৌ কোনো অস্তিত্ব নেই। অথচ ভর্তুকিহীন গ্য‌াস তাঁরা দেদার তুলে বাজারে চড়া দামে বিক্রি করছেন। ভর্তুকি নেন না, এমন এক লক্ষ গ্রাহকের ওপর সমীক্ষা চালিয়ে দেখা গিয়েছে, এঁদের একটা বড়ো অংশের দাবি, ব্য‌াঙ্কে আধার সংযোগ করালেও ভর্তুকি পাওয়া যাচ্ছে না। পেট্রোলিয়াম মন্ত্রক এই দাবি নাকচ করে দিয়েছে। তাদের বক্তব্য‌, ১-২ শতাংশ ক্ষেত্রে এমন অভিযোগ সত্য‌ হতে পারে কিন্তু এটাই দস্তুর এমনটা মেনে নেওয়া যায় না। তাদের বক্তব্য‌, ভবিষ্য‌তে রান্নার গ্য‌াসের কালোবাজারি রুখতেই ভর্তুকিহীন গ্য‌াসের ক্ষেত্রে আধার বা কেওয়াইসি বাধ্য‌তামূলক করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টে আধার সংক্রান্ত মামলার ফলাফল দেখে তার পরে বিজ্ঞাপন দিয়ে গোটা বিষয়টা জানিয়ে দেওয়া হবে বলে কেন্দ্র তেল কোম্পানিগুলিকে জানিয়েছে।

 

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here