‘এক দেশ এক রেশন কার্ড’ চালু করতেই হবে, রাজ্যের ‘অজুহাত’ টিকল না সুপ্রিম কোর্টে

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: দেশের সব রাজ্যকেই ‘এক দেশ এক রেশন কার্ড’ ব্যবস্থা চালু করতে বলল সুপ্রিম কোর্ট। শুক্রবার সর্বোচ্চ আদালত বলে, অভিবাসী শ্রমিকরা যাতে দেশের যে কোনো জায়গা থেকেই রেশন তুলতে পারেন, সে দিকে তাকিয়েই এই নিয়ম কার্যকর করতে হবে রাজ্যগুলিকে।

মহারাষ্ট্র এবং পঞ্জাব সরকার আদালতকে জানায়, তারা এই স্কিম কার্যকর করেছে। তবে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের আইনজীবী জানান, আধার সংযুক্তির সমস্যার জন্য এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি।

Loading videos...

পশ্চিমবঙ্গের এমন যুক্তি শুনে বিচারপতি অশোক ভূষণ এবং বিচারপতি এমআর শাহের বেঞ্চে জানিয়ে দেয়, কোনো অজুহাত দেওয়া যাবে না এবং সমস্ত রাজ্যকে অবশ্যই এটি বাস্তবায়ন করতে হবে।

অভিবাসী শ্রমিকদের কল্যাণ নিয়ে দায়ের হওয়া একটি মামলার শুনানি চলছিল সুপ্রিম কোর্টে। তাঁদের সমস্যাগুলির উপর আলোকপাত করে প্রয়োজনীয় সরকারি পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দেওয়ার জন্য স্বত:প্রণোদিত মামলা হয়েছে সর্বোচ্চ আদালতে। ওই মামলার শুনানিতেই বেঞ্চ বলে, “পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বার্থ এর সঙ্গে জড়িত। এক দেশ, এক রেশন কার্ড ব্যবস্থা চালু করতেই হবে”। এই প্রকল্প কার্যকর হলে কোনো ব্যক্তি যে কোনো রাজ্যে থেকেই রেশন কার্ড পান না কেন, দেশের সর্বত্রই তিনি ওই রেশন কার্ডে সরকারি সুবিধা পাবেন।

অর্থাৎ, যে কোনো রাজ্যে গিয়ে তিনি বরাদ্দের খাদ্য সেখানকার কোনো রেশন দোকান থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন। এখনও পর্যন্ত দেশের ৩২টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত এলাকায় এই ব্যবস্থা চালু হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও বিজেপি শাসিত অসম, কংগ্রেস শাসিত ছত্তীসগঢ় ও দিল্লি এর বাইরে রয়েছে।

এ দিকে খাদ্য দফতর সূত্রে খবর, এ ব্যাপারে সুপ্রিম কোর্টের লিখিত নির্দেশ পাওয়ার পর সেই অনুযায়ী দফতর পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে। তবে নির্দিষ্ট কিছু কারণে ‘এক দেশ এক রেশন কার্ড’ ব্যবস্থা চালু করার ব্যাপারে রাজ্য নির্দিষ্ট কারণ দেখিয়ে আগেই আপত্তি জানিয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: ‘কো-উইন সিস্টেম হ্যাকিং, তথ্য ফাঁসের দাবি ভিত্তিহীন’ হলেও তদন্ত চালাচ্ছে কেন্দ্র

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.