নয়াদিল্লি: লোকপাল নিয়োগ করতে আর কোনো রকম দেরি করা যাবে না, প্রয়োজনে কংগ্রেস সদস্য ছাড়াই তৈরি হোক লোকপাল কমিটি, বৃহস্পতিবার কেন্দ্রকে জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। এর ফলে কমিটিতে বিরোধী সদস্য ছাড়াই লোকপাল নিয়োগ করতে পারবে কেন্দ্র।

এ দিন সুপ্রিম কোর্ট বলে, “বিরোধী দলনেতাকে না রেখেই তৈরি হোক লোকপাল। শুধুমাত্র বিরোধী দলনেতার অনুপস্থিতি, লোকপাল নিয়োগে দেরির কোনো কারণ হতে পারে না।”

এর আগে লোকপাল সংক্রান্ত একপ্রস্থ শুনানিতে লোকপাল গঠনে দেরির জন্য কেন্দ্রকে ভর্ৎসনা করে শীর্ষ আদালত। প্রসঙ্গত ২০১৩ সালে লোকপাল বিল সংসদে পাশ হলেও এখনও পর্যন্ত তা গঠন করা সম্ভব হয়নি।  লোকপাল নিয়োগ করতে এই দেরির যে কোনো যৌক্তিকতা নেই তা সাফ জানিয়ে দেয় শীর্ষ আদালত।

এই দেরি হওয়ার একটি যুক্তি গত মাসে শীর্ষ আদালতকে দিয়েছিল কেন্দ্র। সেখানে তারা বলেছিল, লোকপাল নিয়োগের জন্য যে কমিটি তৈরি করা হয়েছিল, সেখানে কিছু পরিবর্তন করতে হয়েছে। কিন্তু সেই পরিবর্তন এখনও সংসদে পাশ করানো যায়নি।

প্রসঙ্গত ২০১৩-এ লোকপাল বিল পাশ হওয়ার সময় বলা হয়েছিল লোকপাল নিয়োগ করার জন্য একটি কমিটি গঠন করা হবে, সেই কমিটিতে থাকবেন প্রধানমন্ত্রী, সংসদের বিরোধী দলনেতা, স্পিকার, প্রধান বিচারপতি এবং একজন আইন বিশেষজ্ঞ। বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্রের অ্যাটর্নি জেনারেল মুকুল রোহতাগি বলেন, গত লোকসভা নির্বাচনে ভরাডুবির পর বিরোধী দলেরও মর্যাদা পায়নি কংগ্রেস। তাই কমিটিতে ‘বিরোধী দলনেতা’র পরিবর্তে ‘সর্ববৃহৎ বিরোধী গ্রুপের নেতা’কে নিয়ে আসা হবে। কিন্তু সেই সংশোধন করার ব্যাপারে সংসদের সবুজ সংকেত এখনও পাওয়া যায়নি। তাই এই দেরি হচ্ছে।

উল্লেখ্য তিন বছর আগে ক্ষমতায় আসার পর বিজেপি প্রথমে ভেবেছিল বিরোধী দলনেতার পদটি ফাঁকা রেখেই বৈঠকে বসবে লোকপাল কমিটি। কিন্তু পরে নিজের মত পালটায় শাসক দল। যদিও সিবিআইয়ের নতুন ডিরেক্টর নিয়োগ করার কমিটি, তথ্য কমিশন এবং নজরদারি কমিশন সংক্রান্ত কমিটিতে কংগ্রেসের জন্যই জায়গা রেখে দেওয়া হয়েছে, কিন্তু লোকপাল কমিটির জন্য সেটা করেনি কেন্দ্র।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here