নয়াদিল্লি : ফেব্রুয়ারি থেকে আপাতত তিন মাস গাড়ির যানজট নয়। শান্তিতে হেঁটে ঘোরা যাবে দিল্লির কনট প্লেসে।

দূষণের জেরে দিল্লি প্রায় রোজই খবরের শিরোনাম হচ্ছে। সেই দূষণ ঠেকাতে আর গাড়িঘোড়ার চাপ কমাতে এ বার বিশেষ ব্যবস্থা নিল দিল্লির মিউনিসিপ্যাল কাউন্সিল।

দূষণ আর ঘিঞ্জি যানজট এড়াতে একটি পরীক্ষামূলক ব্যবস্থা চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই সিদ্ধান্তের মূলে রয়েছেন নগরোন্নয়নমন্ত্রী এম বেঙ্কাইয়া নাইডূ এবং দিল্লির মিউনিসিপ্যাল কাউন্সিল ও দিল্লির ট্রাফিক পুলিশ। সিদ্ধান্ত অনুসারে কনট প্লেসে গাড়ি ঢোকা নিষিদ্ধ করা হচ্ছে। এলাকাটি পথচারীদের জন্য খুলে দেওয়া হবে। এই এলাকার বাইরে গাড়ি পার্ক করে হেঁটে বা ব্যাটারি চালিত দু’চাকার গাড়ি করে ঘুরে বেড়ানো যাবে বা যাওয়া যাবে দোকানগুলিতেও। থাকবে ‘লাইট অ্যান্ড সাউন্ড শো’। এ ছাড়াও বিনোদনের জন্য একাধিক ব্যবস্থা করা হবে গোটা এলাকায়। মার্চ থেকে এখানে এমটিএনএলের ওয়াইফাই পরিষেবাও দেওয়া হবে।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, প্রতি দিন প্রায় ৫ লাখ মানুষের ভিড় হয় এই এলাকায়। শিবাজি স্টেডিয়াম, বাবা খরক সিং মার্গ ও পালিকার পার্কিং এলাকায় প্রায় ৩ হাজার ১৭২টি গাড়ি দাঁড় করানো যায়। কিন্তু সেই জায়গায় রোজ মাত্র ১ হাজার ৮৮টি গাড়ি সেখানে দাঁড় করানো হয়। বাকিরা গাড়ি নিয়ে ভিতরে ঢোকেন।

পুলিশ ও নতুন দিল্লি মিউনিসিপ্যাল কাউন্সিল (এনডিএমসি)-র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ‘পার্ক অ্যন্ড রাইড’ প্রকল্পের সাহায্যে পার্কিং-এর গোটা জায়গাটা কাজে লাগানো হবে। তিন মাস দেখার পর সেটা পাকাপাকি ভাবে কার্যকর করা হবে। ‘স্মার্টসিটি’ করতে এটা একদম প্রাথমিক ধাপ বলে মনে করছে কাউন্সিল।

প্রসঙ্গত, ব্রিটেন, কানাডা-সহ বহু দেশের বেশ কিছু জায়গায় দূষণ এড়াতে ‘যানমুক্ত পথচারী এলাকা’ করা হয়েছে। এমনকি এশিয়া ও ইউরোপ মহাদেশের বিভিন্ন দেশেও এখন এই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here