হাইওয়ের ধারে আর নতুন করে মদের দোকান নয়, জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট

0
প্রতীকী ছবি: dnaindia.com থেকে

খবর অনলাইন ডেস্ক: জাতীয় অথবা রাজ্য মহাসড়কের ধারে পাঁচশো মিটারের মধ্যে আর নতুন করে মদের দোকানের লাইসেন্স মিলবে না। এই মর্মে জাতীয় মহাসড়ক মন্ত্রকের কাছে নির্দেশিকা পাঠিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তবে এ ধরনের যে সব এলাকায় ২০ হাজার বা তার কম সংখ্যক মানুষ বসবাস করেন, সে ক্ষেত্রে পাঁচশো মিটারের সীমারেখা কমে নামবে ২২০ মিটারে।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ পাওয়ার পর তা বাস্তবায়নের জন্য সব রাজ্যের সংশ্লিষ্ট দফতরকে অবহিত করেছে জাতীয় মহাসড়ক মন্ত্রক। একই সঙ্গে মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানোর জন্য মোটর ভেহিকল অ্যাক্ট, ১৯৮৮-র ১৮৫ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী শাস্তি হিসেবে জেল বা জরিমানা অথবা উভয়ই প্রয়োগ করার নির্দেশের কথা আরও এক বার স্মরণ করিয়েছে মন্ত্রক।

জাতীয় এবং রাজ্য হাইওয়ের পাশে অবস্থিত সম্পত্তিগুলিতে কার্যকলাপ সম্পর্কিত বিষয়গুলি নিয়ে পর্যবেক্ষণ ও তদারকি করে এই মন্ত্রক। তবে জাতীয় মহাসড়কের ধারে অবস্থিত জমির ব্যবহার এবং ব্যবসা পরিচালনার উপর কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই তাদের।

যেহেতু মদের দোকানের লাইসেন্স সংক্রান্ত বিষয় রাজ্য সরকার অথবা স্থানীয় কর্তৃপক্ষের বিবেচনাধীন, তাই সেগুলির অপসারণের ব্যাপারেও তারা হস্তক্ষেপ করতে পারে না।

Shyamsundar

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালে জাতীয় এবং রাজ্য মহাসড়কের ধারে মদের দোকান নিষিদ্ধ করার নির্দেশ দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। বলা হয়েছিল, মহাসড়কের পাশে নতুন করে মদের দোকানের লাইসেন্স দেওয়া বন্ধ করা হোক।

শীর্ষ আদালত আরও বলেছিল, জাতীয় এবং রাজ্য মহাসড়কে মদের দোকানের কোনো বিজ্ঞাপন দেওয়াও উচিত নয়। যদিও ওই নিয়ম ইতিমধ্যেই চালু হয়ে গিয়েছে, এ রকম মদের দোকানের জন্য প্রযোজ্য ছিল না।

আরও পড়তে পারেন: হিরো গ্ল্যামার এক্সটেক: নতুন বাইকে ৭ শতাংশ বাড়তি মাইলেজের আশ্বাস

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন