ধর্ষণ, অপহরণে সাজাপ্রাপ্তদের আর প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হবে না। বুধবার এই বিষয়ে নিজেদের রাজ্যের জেল নির্দেশিকা সংশোধন করল মহারাষ্ট্র সরকার। পল্লবী পুরকায়স্থকে ধর্ষণ করে খুন করায় অভিযুক্ত আসামির প্যারোলে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় মুখ পুড়েছিল ফড়নবিস সরকারের। সেই পরিপ্রেক্ষিতেই বুধবার এই সংশোধনী আনল মহারাষ্ট্র।

ধর্ষণ আর অপহরণকারীদের সাথে ডাকাতি, সন্ত্রাস, রাষ্ট্রদ্রোহিতা, মানুষ পাচার আর মাদক পাচারে সাজাপ্রাপ্ত আসামিদেরও প্যারোল দেওয়া হবে না। এর সাথে সেই আসামিদেরও প্যারোল দেওয়া হবে না যাঁরা নিজেদের সাজার বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে মামলা করেছেন। তবে দু’টি ক্ষেত্রে প্যারোল মঞ্জুর করা হবে। কোনও সাজাপ্রাপ্তের নিকটতম আত্মীয়ের মৃত্যু বা অসুস্থতা আর নিজের সন্তানের বিবাহের ক্ষেত্রে ‘আপৎকালীন’ প্যারোল দেওয়া হবে। যাঁরা পাঁচ বা তার কম বছরের জন্য সাজাপ্রাপ্ত, তাঁদের প্যারোলে আপত্তি নেই সরকারের।

উল্লেখ্য মুম্বইয়ের একটি ফ্ল্যাটে আইনজীবী পল্লবী পুরকায়স্থকে ধর্ষণের পর খুন করে সেই ফ্ল্যাটের গার্ড সাজ্জাদ মোঘল। ২০১৪ সালে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত হওয়া মোঘল, এই বছরের মার্চে অসুস্থ মাকে দেখার জন্য প্যারোলের আবেদন করে। প্যারোলে মুক্ত হয়ে পুলিশের চোখে ধোঁকা দিয়ে পালিয়ে যায় সে। আজ পর্যন্ত তার কোনও হদিশ পায়নি মহারাষ্ট্র পুলিশ।  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here