kashmir martyr rti

নয়াদিল্লি: জঙ্গি বা শত্রুপক্ষের সঙ্গে সংঘর্ষে সেনা জওয়ান বা পুলিশকর্মীর নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটলে সংবাদমাধ্যমের একাংশ ‘শহিদ’ শব্দটি ব্যবহার করে। কিন্তু তাদের পরিভাষায় আদৌ ‘শহিদ’ নামক কোনো শব্দ নেই বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে প্রতিরক্ষা এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। ‘শহিদ’ শব্দটির বদলে সেনার ক্ষেত্রে ‘ব্যাটেল ক্যাজুয়ালটি’ এবং পুলিশের ক্ষেত্রে ‘অপারেশন ক্যাজুয়ালটি’ শব্দ দু’টি ব্যবহার করা হয়।

এক আবেদনকারীর দায়ের করা আরটিআইয়ের ভিত্তিতে এই ব্যাপারটি সামনে এসেছে। ‘শহিদ’ শব্দটির প্রকৃত অর্থ এবং শব্দটি কোথাও বেআইনি ভাবে ব্যবহার করা হয় কি না সেটা জানার জন্য তথ্যের অধিকার আইনের মাধ্যমে জানতে চান এক আবেদনকারী। সেখানে তিনি দাবি করেন, শব্দটি যদি কোথাও বেআইনি ব্যবহার করা হয়, তা হলে সে ক্ষেত্রে আইনানুগ ব্যবস্থাও যেন নেওয়া হয়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক এবং প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের কাছে প্রথমে এই আবেদন করেন আবেদনকারী, কিন্তু কোথাও সদুত্তর না পাওয়ায় কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশনের (সিআইসি) দারস্থ হন তিনি। আরটিআই সংক্রান্ত আবেদন শোনার জন্য সর্বোচ্চ জায়গা এই সিআইসি।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রককে এ বার আরটিআইয়ের জবাব দিতে বলে সিআইসি। তথ্য কমিশনার যশোবর্ধন আজাদের সামনে হাজিরা দেন এই দুই মন্ত্রকের আধিকারিকরা। আজাদ বলেন, “প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে বলা হয়েছে তাদের পরিভাষায় ‘শহিদ’ নামের কোনো শব্দ নেই। তারা ‘ব্যাটেল ক্যাজুয়ালটি’ শব্দটি ব্যবহার করে। অন্য দিকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক জানিয়েছে তাদের পরিভাষায় ‘শহিদ’-এর বদলে ‘অপারেশন্‌স ক্যাজুয়ালটি’ শব্দ ব্যবহার করা হয়।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here