এ বার সরাসরি বিরোধীদের উদ্দেশে বার্তা নোবেলজয়ী অভিজিতের

0
Abhijit Banerjee and Modi
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতে নোবেলজয়ী। ফাইল ছবি

জয়পুর: রবিবার জয়পুর সাহিত্য উৎসবে অংশ নিয়ে সরাসরি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির উদ্দেশে স্পষ্ট বার্তা দিলেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিত বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, গণতন্ত্রের প্রাণকেন্দ্র হল বিরোধীরা। ভারতের জন্য আরও ভালো বিরোধী দলের প্রয়োজন। ক্ষমতাসীনদেরও উচিত, যেন এই দিকটি সঠিক ভাবে রক্ষা পায়।

তাঁর কথায়, “আপনি সহজেই যুক্তি দিতে পারেন যে সিঙ্গাপুরে একটি সফল স্বৈরতন্ত্র ছিল, এবং সহজেই ফিরে এসে জিম্বাবোয়ে সম্পর্কেও একই কথা বলতে পারেন। আমরা এই বিরক্তিকর বিষয়গুলি সম্পর্কে আলোচনা করতে পারি … কিন্তু কোনো একটি পর্যায়ে গিয়ে দেখা যাবে এ ধরনের স্বৈরতন্ত্র আদতে দৃষ্টিভ্রম”।

কারণ গণতন্ত্রে বিরোধীদের উন্নততম অবস্থানের প্রয়োজন রয়েছে। তিনি বলেন, “আমি মনে করি ভারতের আরও ভালো বিরোধী প্রয়োজন। কারণ বিরোধীরাই গণতন্ত্রের প্রাণকেন্দ্র। এ ব্যাপারে শাসক দলকেও সজাগ হতে হবে”।

তিনি অর্থনৈতিক সাফল্যের জন্য ক্ষমতার হস্তান্তর এবং বিকেন্দ্রীকরণের উপর বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলেন। তাঁর কথায়, “চিনের দিকে তাকান, এটি এমন একটি স্বৈরতান্ত্রিকতা, যেখানে তৃণমূল স্তরের গণতন্ত্রের ভিত্তির উপর দাঁড়িয়ে রয়েছে। তারা ২০ বছর আগে গ্রাম নির্বাচনের সূচনা করেছিল। নির্বাচিত নেতারা বিভিন্ন জায়গায় যান। সেখানে আন্তঃপ্রদেশের প্রতিযোগিতা তীব্র। সেখানে ক্ষমতার বিবর্তন হয়েছে। ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি দেশের কেন্দ্রীয় শক্তি হওয়া সত্ত্বেও চিন ভারতের চেয়ে অনেক বেশি বিকেন্দ্রীভূত”।

আরও পড়ুন: ইউরোপীয় ইউনিয়নের পার্লামেন্টে পেশ সিএএ-বিরোধী প্রস্তাব

অভিজিত বলেন, “দারিদ্র্য ক্যানসারের মতোই, বিবিধ সমস্যা। এখানে ভিন্ন ভিন্ন রোগ রয়েছে। কিছু মানুষ শিক্ষাগত ভাবে দুর্বল, কেউ স্বাস্থ্যগত, কারও আবার অর্থের অভাব। আপনাকে খুঁজে বের করতে হবে, কোনটার খামতি রয়েছে। শুধুমাত্র একটা পদক্ষেপেই সমস্ত সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে, এমনটা অসাধ্য”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন