করোনা-যোদ্ধাদের অবজ্ঞা! কেন্দ্রকে নোটিশ জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের

0
প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সামনের সারিতে থাকা স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রতি অবজ্ঞার অভিযোগ উঠছে বিমা সংস্থাগুলির বিরুদ্ধে। এ প্রসঙ্গেই বিমা নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইআরডিএ (IRDA) এবং অর্থমন্ত্রককে নোটিশ ধরাল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন (NHRC)।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে কমিশন লক্ষ্য করেছে, করোনা-যোদ্ধাদের (Corona warriors) গ্রুপ ইন্সুরেন্স (Group Insurance)-এর আবেদন ফেরাচ্ছে বেশ কয়েকটি বিমা সংস্থা। অন্য দিকে কোনো কোনো ক্ষেত্রে তাঁদের কাছ থেকে উচ্চ হারে প্রিমিয়াম দাবি করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে স্বত:প্রণোদিত উদ্যোগ নিয়ে কমিশন আইআরডিএ এবং অর্থমন্ত্রককে নোটিশ পাঠিয়ে তাদের কাছ থেকে বিশদ রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে। নোটিশে বলা হয়েছে, আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে যেন ওই রিপোর্ট জমা করা হয়।

কমিশন বলেছে, অধিকাংশ চিকিৎসকই মেডিক্যাল কভারের মধ্যে রয়েছেন। কিন্তু তাঁদের কর্মীদের জন্যও নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে হবে।

কমিশনের একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকার স্বাস্থ্য পরিষেবা কর্মীদের জন্য ৫০ লক্ষ টাকার বিমা বরাদ্দ করেছে। কিন্তু বেসরকারি হাসপাতাল অথবা কোভিড-১৯ ব্যতিরেকে ক্ষেত্রগুলিতে কাজ করা স্বাস্থ্যকর্মীরা এই সুযোগ পাবেন কি না, তা নিয়ে বিভ্রান্তি রয়েছে।

কমিশন লক্ষ্য করেছে, করোনা মহামারির পর্যায়ে পর্যাপ্ত স্বাস্থ্যপরিষেবা এবং পরিকাঠামোর প্রয়োজন রয়েছে এ দেশে। কিন্তু বিমাসংস্থাগুলি যদি করোনা-যোদ্ধাদের দিক থেকে এ ভাবে মুখ ফিরিয়ে নেয়, তা হলে তাঁদের মনোবল হ্রাস পাবে। যার ফল ভুগতে হবে সাধারণ মানুষকে।

এই ধরনের ঘটনায় মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হচ্ছে বলে ধারণা করছে কমিশন। যে কারণে স্বত:প্রণোদিত হয় হস্তক্ষেপ করা হয়েছে। এই ঘটনা চলতে থাকলে দুর্দশায় পড়বে গরিব মানুষ। এমনিতেই পর্যাপ্ত চিকিৎসা পরিষেবার অভাবে তারা আশঙ্কায় ভুগছে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন