Digital India

ওয়েবডেস্ক: আধার কার্ডের সঙ্গে ব্যক্তিগত তথ্য যোগ নিয়ে নিরাপত্তাহীনতার হাওয়া এখন এ দেশে। তার সঙ্গেই এ বার সরকারি নজরদারিতে আসতে চলেছে দেশের প্রতিটি মানুষের ঠিকানা। জানা গিয়েছে, খুব তাড়াতাড়িই সরকারি উদ্যোগে এ বার বদলে যাবে বাড়ির ঠিকানা। নতুন ঠিকানা প্রকাশ পাবে অক্ষর আর সংখ্যা মিলিয়ে ৬টি ডিজিটাল নম্বরে। আর ঠিকানার সেই ডিজিটাল নম্বরের মাধ্যমেই সরাসরি সরকারি নজরদারিতে এসে যাবে ভারতবাসীর বাড়ি।

জানা যাচ্ছে, ঠিকানাকে নম্বরে বদলে ফেলার এই পদ্ধতি সম্পন্ন হবে ই-লোকেশনের মাধ্যমে। সরকারের যোগাযোগ মন্ত্রক এখন কোমর বেঁধেছে এই পরিকল্পনার বাস্তব রূপায়ণে। অঞ্চল, বাড়ির নম্বর আর রাজ্যর তথ্যকে ছোটো করে নিয়ে তৈরি হবে এই নতুন ডিজিটাল ঠিকানা। সেই ডিজিটাল নম্বর যোগ করা যাবে সম্পত্তি-সংক্রান্ত যে কোনও খাতে। পাশাপাশি ভিজিটিং কার্ডেও ব্যবহার করা যাবে এই নম্বর। প্রাথমিক স্তরে দিল্লি আর নয়ডার দু’টি ঠিকানাকে রূপান্তরিত করা হয়েছিল এ রকম আলফানিউমোরিক ডিজিটাল নম্বরে। সেই সাফল্যে উৎসাহিত হয়ে এ বার সারা দেশের ঠিকানাই বদলাতে চলেছে।

যোগাযোগ মন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে, এই ঠিকানা পরিবর্তনে লাভ বই ক্ষতি নেই। কেন না, ঠিকানাকে ডিজিটাল নম্বরে বদলে ফেললে তা খুঁজে বের করা যে কারও পক্ষেই অনেক বেশি সহজ হবে। সেই ডিজিটাল নম্বরটি শুধু টাইপ করতে হবে ম্যাপ মাই ইন্ডিয়ার পোর্টালে বা অ্যাপে। ব্যস, সঙ্গে সঙ্গে স্পষ্ট ভাবে পাওয়া যাবে সেই ঠিকানায় পৌঁছোনোর সহজ হদিশ।

ম্যাপ মাই ইন্ডিয়ার ডিরেক্টর-জেনারেল অভিষেক কুমার সিং এই খবরে আনন্দ প্রকাশ করে জানিয়েছেন যে এ বার থেকে ঠিকানা খুঁজে বের করার পথটি আরও সহজ ও প্রশস্ত হল। যদিও সারা দেশের সব ঠিকানাকে ডিজিটাল নম্বরে বদলে ফেলার কাজটি মোটেই সহজসাধ্য নয়। যোগাযোগ মন্ত্রকের তরফে জানা যাচ্ছে যে এর মধ্যেই অনেক ঠিকানা রূপান্তরিত করতে গিয়ে অসুবিধায় পড়তে হচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রেই রূপান্তরের পরে প্রায় এক হয়ে যাওয়া ঠিকানা নিয়ে সমস্যা দেখা দিচ্ছে। তবে তাতে মোটেও পিছ-পা নয় সরকার। সেই সমস্যারও সমাধান তাড়াতাড়িই হবে বলে জানা যাচ্ছে।

তথ্যসূত্র: ইকোনমিক টাইমস

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here